আজ ফিরোজা বেগমের চতুর্থ মৃত্যুবার্ষিকী

প্রকাশ: ০৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮      

সমকাল প্রতিবেদক

উপমহাদেশের প্রখ্যাত নজরুলসঙ্গীত শিল্পী ফিরোজা বেগমের চতুর্থ মৃত্যুবার্ষিকী আজ। ২০১৪ সালের ৯ সেপ্টেম্বর রাজধানীর একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ৮৪ বছর বয়সে ইন্তেকাল করেন তিনি।

ফিরোজা বেগম ১৯৩০ সালের ২৮ জুলাই ফরিদপুরে জন্মগ্রহণ করেন। পারিবারিক আবহে গান শেখার সুযোগ তেমন একটা ছিল না। তবে তার মা-বাবা ছিলেন সঙ্গীতভক্ত। তার গান শেখার ক্ষেত্রে এটাই ছিল মূল সহায়ক।

১৯৪২ সালে মাত্র ১২ বছর বয়সে বিখ্যাত গ্রামোফোন কোম্পানি এইচএমভি থেকে ইসলামী গান নিয়ে ফিরোজা বেগমের প্রথম রেকর্ড বের হয়। বিখ্যাত সুরসাধক চিত্ত রায়ের তত্ত্বাবধানে তিনি গাইলেন 'মরুর বুকে জীবনধারাকে বহাল'। তাতেই বাজিমাত।

এরপর কীর্তিমান সুরকার, গীতিকার ও সঙ্গীতশিল্পী কমল দাশগুপ্তের তত্ত্বাবধানে উর্দু গানের রেকর্ড করেন ফিরোজা বেগম। এটি তার দ্বিতীয় রেকর্ড। ১৯৫৬ সালে কমল দাশগুপ্তকে বিয়ে করেন তিনি।

সঙ্গীতজীবনেই বিদ্রোহী কবি কাজী নজরুল ইসলামের সান্নিধ্য পেয়েছিলেন ফিরোজা বেগম। ১৯৪৯ সালে বের করলেন নজরুলের গান নিয়ে প্রথম রেকর্ড। ১৯৫৪ থেকে ১৯৬৭ সাল পর্যন্ত কলকাতায় ছিলেন কিংবদন্তি এই শিল্পী। পরে চলে আসেন ঢাকায়। তার তিন ছেলে তাহসিন, হামিন ও শাফিন।

ফিরোজা বেগমের স্মরণে ২০১৬ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে 'ফিরোজা বেগম স্বর্ণপদক' প্রবর্তন করা হয়েছে।

নজরুলসঙ্গীতে অসামান্য অবদান রাখায় স্বাধীনতা পদক, একুশে পদক, নজরুল একাডেমি পদক, নেতাজি সুভাষ চন্দ্র পুরস্কার, সত্যজিৎ রায় পুরস্কার, নাসিরউদ্দীন স্বর্ণপদক, বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমি স্বর্ণপদকসহ নানা পুরস্কারে ভূষিত হয়েছেন ফিরোজা বেগম। এ ছাড়া কলকাতায় তাকে বঙ্গ সম্মানে ভূষিত করা হয়।