রোহিঙ্গাদের সহায়তায় আরও অর্থ চাইল ব্র্যাক

প্রকাশ: ১০ সেপ্টেম্বর ২০১৮      

কূটনৈতিক প্রতিবেদক

কক্সবাজারে আশ্রয় নেওয়া প্রায় ১০ লাখ রোহিঙ্গার বেঁচে থাকার প্রয়োজনে সহায়তা দিতে আরও বেশি অর্থ প্রয়োজন বলে মনে করে ব্র্যাক। চলতি বছরের মার্চ থেকে ডিসেম্বর পর্যন্ত কার্যক্রম বাস্তবায়নে সংস্থাটির প্রয়োজন পাঁচ কোটি ৬৪ লাখ মার্কিন ডলার; কিন্তু তারা এখন পর্যন্ত পেয়েছে মাত্র দুই কোটি ৪২ লাখ মার্কিন ডলার, যা প্রয়োজনের তুলনায় অর্ধেকেরও কম। বিশেষ করে রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর পাশাপাশি কক্সবাজারের স্থানীয়দের জীবনমান উন্নয়নের জন্য অর্থ সংকট সবচেয়ে বেশি। গতকাল রোববার ব্র্যাক সেন্টারে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে এ কথা জানান ব্র্যাকের নির্বাহী পরিচালক ড. মুহাম্মদ মুসা। মতবিনিময়ে আরও অংশ নেন ব্র্যাকের পরিচালক আকরামুল ইসলাম, মৌটুসী কবীর ও কেএম মোর্শেদ।

সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে মুহাম্মদ মুসা বলেন, জাতিসংঘের উদ্যোগে রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর মানবিক সহায়তার জন্য ৪৩৫ মিলিয়ন মার্কিন ডলার প্রয়োজনের কথা বলা হয়েছিল। কিন্তু সে সময় পাওয়া যায় ৩৩৫ মিলিয়ন ডলার। এর ফলে রোহিঙ্গাদের জন্য মানববিক সহায়তা কার্যক্রম ১০০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার ঘাটতি নিয়েই শুরু হয়। তিনি বলেন, মোট বরাদ্দের ৭৫ শতাংশ আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গাদের জন্য এবং ২৫ শতাংশ কক্সবাজারের স্থানীয় জনগণের জন্য ব্যয়ের শর্ত রয়েছে। প্রয়োজনীয় বরাদ্দ না পাওয়ায় স্থানীয় জনগোষ্ঠীর জীবনমান উন্নয়নে অর্থের ঘাটতি থেকেই যাচ্ছে। তিনি বলেন, রোহিঙ্গা সংকট একার বাংলাদেশের সমস্যা নয়। এটি আন্তর্জাতিক সমস্যা। মানবিক সহায়তা জোরদার করতে তাই আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কেই দায়িত্ব নিতে হবে।

ব্র্যাকের পরিচালক আকরামুল ইসলাম জানান, ব্র্যাক শুরুতে মানবিক দায়িত্ব থেকেই নিজেদের প্রায় ৫০ কোটি টাকা নিয়ে বিপন্ন রোহিঙ্গাদের জন্য জরুরি সহায়তা কার্যক্রম শুরু করে। এর মধ্যে ছিল নিরাপদ পয়ঃনিস্কাশনের জন্য স্যানিটারি টয়লেট স্থাপন, ক্যাম্পের ঘরের মেঝেতে শোয়ার উপযোগী মাদুর বিছানো, নিরাপদ খাদ্য ও পানীয় সরবরাহ। প্রাথমিক অবস্থার পর রোহিঙ্গাদের জন্য শিক্ষার ব্যবস্থাসহ তাদের আরও ভালোভাবে বেঁচে  থাকার জন্য একাধিক কার্যক্রম সম্পন্ন করে ব্র্যাক।
এমসি কলেজ ছাত্র সংসদ ভবনই বেদখলে

এমসি কলেজ ছাত্র সংসদ ভবনই বেদখলে

প্রায় তিন দশক পর দেশের সর্বোচ্চ বিদ্যাপীঠ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে শুরু ...

ইটভাটায় আইন লঙ্ঘনের জরিমানা বাড়ছে

ইটভাটায় আইন লঙ্ঘনের জরিমানা বাড়ছে

পরিবেশ বিপর্যয় ঠেকাতে ইটভাটা নির্মাণ ও ইট প্রস্তুতের ক্ষেত্রে আইন ...

শাঁখারি কার্ত্তিকের 'বাড়ি' বাঁচানোই দায়

শাঁখারি কার্ত্তিকের 'বাড়ি' বাঁচানোই দায়

শাঁখারি কার্ত্তিক চন্দ্র সেন। বাড়ি ডেফলচড়া শাঁখারিপাড়া। পাবনার চাটমোহর উপজেলার ...

মন্ত্রিসভায় উঠছে যুদ্ধাপরাধীদের সম্পদ বাজেয়াপ্ত আইন

মন্ত্রিসভায় উঠছে যুদ্ধাপরাধীদের সম্পদ বাজেয়াপ্ত আইন

একাত্তরের মানবতাবিরোধী অপরাধীদের সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করতে নতুন আইন করছে সরকার। ...

নতুন নৌবাহিনী প্রধান আওরঙ্গজেব চৌধুরী

নতুন নৌবাহিনী প্রধান আওরঙ্গজেব চৌধুরী

নৌবাহিনীর প্রধান হিসেবে নিয়োগ পেলেন এ এম এম এম আওরঙ্গজেব ...

অন্যকে ফাঁসাতে গর্ভের সন্তানকে হত্যা!

অন্যকে ফাঁসাতে গর্ভের সন্তানকে হত্যা!

গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়ায় ১ মাসের শিশু সন্তানকে পানিতে ফেলে হত্যার অভিযোগে ...

মাদ্রাসা শিক্ষকের একী কাণ্ড!

মাদ্রাসা শিক্ষকের একী কাণ্ড!

সিলেবাস দেওয়ার কথা বলে বাসায় ডেকে নিয়ে অষ্টম শ্রেণি পড়ূয়া ...

ভুয়া ভোটে নির্বাচিতরা ভুয়া প্রতিনিধি: সেলিম

ভুয়া ভোটে নির্বাচিতরা ভুয়া প্রতিনিধি: সেলিম

বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির (সিপিবি) সভাপতি মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম একাদশ জাতীয় ...