'তুই' থেকে তুলকালাম

দক্ষিণখানে কিশোর শুভ হত্যা

প্রকাশ: ১০ সেপ্টেম্বর ২০১৮      

সমকাল প্রতিবেদক

'তুই' থেকে তুলকালাম

রাজধানীর দক্ষিণখানে মেহেদী হাসান শুভ হত্যায় শনিবার গোয়েন্দা পুলিশের অভিযানে গ্রেফতার ৮ কিশোর- সমকাল

রাজধানীর দক্ষিণখানে কিশোরদের দুই গ্রুপের মধ্যে 'তুই' বলা নিয়ে বিরোধের জের ধরে মেহেদী হাসান শুভকে ছুরিকাঘাতে হত্যা করা হয়। এ ঘটনায় গ্রেফতার আটজনকে জিজ্ঞাসাবাদের বরাত দিয়ে গতকাল রোববার এ তথ্য জানায় পুলিশ। তাদের মধ্যে তিনজন আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে।

গ্রেফতার আটজন হলো- সাইফ, মনির, আরাফাত, সাইফুল, মেহেরাব, আপেল, সিফাত ও সোহেল। ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) উত্তর বিভাগের একটি দল শনিবার ঢাকা ও আশপাশের এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার করে। এ সময় প্রধান আসামি সাইফের কাছ থেকে একটি 'সুইচ গিয়ার ছুরি' উদ্ধার করা হয়।

৩১ আগস্ট দক্ষিণখানের কেসি হাসপাতাল এলাকায় প্রতিপক্ষের ছুরিকাঘাতে আহত হয় কিশোর মেহেদী হাসান। হাসপাতালে নেওয়ার পর তাকে মৃত ঘোষণা করেন চিকিৎসক। ঘটনার কয়েক দিন আগে সে ঢাকায় বন্ধুর বাসায় বেড়াতে এসেছিল। এ ঘটনায় ১ সেপ্টেম্বর মেহেদীর বাবা বাদী হয়ে দক্ষিণখান থানায় মামলা করেন। থানা পুলিশের পাশাপাশি মামলাটির ছায়া তদন্ত শুরু করে ডিবি।

মেহেদী হত্যাকাণ্ডে জড়িতদের গ্রেফতার উপলক্ষে গতকাল ডিএমপি মিডিয়া সেন্টারে সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। এতে ডিএমপির গণমাধ্যম ও জনসংযোগ শাখার উপকমিশনার মাসুদুর রহমান বলেন, দক্ষিণখানের চেয়ারম্যানবাড়ী ইউনিয়নের নগরিয়া বাড়ি এলাকায় আধিপত্য বিস্তার, সিনিয়র-জুনিয়র দ্বন্দ্ব এবং স্বার্থসংশ্নিষ্ট বিভিন্ন বিষয়ে শান্ত ও আরাফাত গ্রুপের মধ্যে প্রায়ই হাতাহাতি-মারামারি হয়। শান্ত ও আরাফাত ছাড়াও ওই এলাকায় কিশোর-তরুণদের কয়েকটি গ্রুপ রয়েছে। যেমন জিম-জিয়াদ গ্রুপ, কামাল গ্রুপ ও আনছার গ্রুপ। এ গ্রুপগুলো এলাকায় চাঁদাবাজি, ইভটিজিং, ছিনতাই, হত্যাসহ নানা অপরাধে জড়িত।

ঈদের ১০-১৫ দিন আগে শান্ত গ্রুপের সদস্য হুন্ডা মেহেদীকে 'তুই' বলে সম্বোধন করে আরাফাত গ্রুপের কাউসার ওরফে কডা। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে কডাকে মারধর করে হুন্ডা মেহেদী ও নিহত মেহেদী হাসান। এরপর ১৮ আগস্ট মেহেদীসহ শান্ত গ্রুপের সদস্যরা আরাফাত গ্রুপের সাইফকে মারধর করে। ৩১ আগস্ট আরাফাত গ্রুপের তৌকিরের বাঁ কব্জি ও বুকের বাঁ পাশে সুইচ গিয়ার ছুরি দিয়ে আঘাত করে মেহেদী হাসান ও নাজমুল। এ ঘটনার পর থেকে আরাফাত গ্রুপের সদস্যরা মেহেদী ও নাজমুলকে মারধর করার উদ্দেশ্যে খুঁজতে থাকে। সেদিন বিকেলে কেসি কনভেনশন হলে একটি জনসভায় শান্ত গ্রুপের লোকজন মিছিল নিয়ে যাওয়ার সময় আরাফাত গ্রুপের সদস্যরা আক্রমণ করে। আরাফাত গ্রুপের সানি ও সোহেল জড়িয়ে ধরে মেহেদীকে এবং সাইফ বাঁ কানের নিচে ছুরিকাঘাত করে। এ সময় অন্যরা তাকে লাঠি দিয়ে মারধর করে। আহত অবস্থায় মেহেদীকে প্রথমে কেসি হাসপাতাল ও পরে কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে নেওয়া হয়।

ডিবি উত্তর বিভাগের উপকমিশনার মশিউর রহমান সমকালকে জানান, গ্রেফতার সিফাত, আরাফাত ও সাইফ গতকাল আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে। মনির, সাইফুল, মেহেরাব ও সোহেলকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য চারদিনের রিমান্ডে নেওয়া হয়েছে। গ্রেফতার আপেল কিশোর হওয়ায় তাকে কিশোর উন্নয়ন কেন্দ্রে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।
গ্রেফতার বন্ধের দাবি নিয়ে আইজিপির কাছে বিএনপি

গ্রেফতার বন্ধের দাবি নিয়ে আইজিপির কাছে বিএনপি

নির্বাচনী প্রচারে নেতাকর্মীদের গ্রেফতার ও হয়রানি করা হচ্ছে দাবি করে ...

এফডিসিতে হবে আধুনিক মসজিদ

এফডিসিতে হবে আধুনিক মসজিদ

২ কোটি ৯ লক্ষ টাকা ব্যায়ে চলচ্চিত্রপাড়া খ্যাত এফডিসিতে নির্মিত ...

সুষ্ঠু নির্বাচন আদায় করে নিতে হবে: ড. কামাল

সুষ্ঠু নির্বাচন আদায় করে নিতে হবে: ড. কামাল

পূণ্যভূমি সিলেটে মাজার জিয়ারতের মাধ্যমে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জাতীয় ...

খালেদা জিয়ার প্রার্থিতা নিয়ে নতুন বেঞ্চে শুনানি বৃহস্পতিবার

খালেদা জিয়ার প্রার্থিতা নিয়ে নতুন বেঞ্চে শুনানি বৃহস্পতিবার

আসন্ন নির্বাচনে তিন আসনে বিএনপি চেয়ারপারসন কারাবন্দি খালেদা জিয়ার প্রার্থিতা ...

শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবসে যান চলাচলে ডিএমপির নির্দেশনা

শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবসে যান চলাচলে ডিএমপির নির্দেশনা

আগামী ১৪ ডিসেম্বর শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী এবং ...

আ.লীগের মতো উন্নয়ন কেউ করেনি: নাসিম

আ.লীগের মতো উন্নয়ন কেউ করেনি: নাসিম

আওয়ামী লীগ সরকারের সময় যে উন্নয়ন হয়েছে তা অতীতের কোন ...

'স্লগ ওভারে বোলিংয়ে উন্নতি দরকার'

'স্লগ ওভারে বোলিংয়ে উন্নতি দরকার'

গেল জুলাইয়ের কথা। ওয়ানডে সিরিজে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে প্রথম ম্যাচে ...

প্রার্থী বৈধ অস্ত্র সঙ্গে রাখতে পারবেন: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

প্রার্থী বৈধ অস্ত্র সঙ্গে রাখতে পারবেন: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন উপলক্ষে আত্মরক্ষার জন্য প্রার্থীর যে ...