সিলেটে স্কুলছাত্র ইমন হত্যা মাসহ দু'জন সাক্ষ্য দিলেন

প্রকাশ: ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৮      

সিলেট ব্যুরো

সুনামগঞ্জের ছাতক উপজেলার চাঞ্চল্যকর শিশু ইমন হত্যা মামলার সাক্ষ্য দীর্ঘ এক বছর পর আবার শুরু হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার নিহতের মা শামীমা বেগম ও আত্মীয় আব্দুর রহমান সাক্ষ্য দেন। সিলেটের দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. মকবুল আহসানের আদালতে তারা সাক্ষ্য প্রদানকালে হত্যাকাণ্ডের বিভিন্ন বিষয় তুলে ধরেন। আদালতের পিপি অ্যাডভোকেট কিশোর কুমার কর জানিয়েছেন, ১৬ জন সাক্ষ্য দিয়েছেন। সাক্ষ্যগ্রহণ শেষ পর্যায়ে। তিনি বলেন, যারা এরই মধ্যে সাক্ষ্য দিয়েছেন তারা প্রত্যেকেই প্রমাণ করতে পেরেছেন কারা শিশু ইমনকে হত্যা করেছে।

গতকাল সাক্ষ্য প্রদানকালে ইমনের মা শামীমা বেগম উল্লেখ করেন, ২০১৫ সালের ২৭ মার্চ ইমন বাড়ির সামনে খেলা করছিল। তার বাবা তাকে খেলার মাঠ থেকে আনতে গেলে তাকে পাননি। ওইদিন আসরের নামাজের পর গ্রামের কালা মিয়ার মোবাইল ফোনে বলা হয়, ২ লাখ টাকা নিয়ে দোয়ারাবাজার গেলে ইমনকে ফেরত দেওয়া হবে। কিন্তু সেখানে গিয়ে কাউকে পাওয়া যায়নি। ৮ এপ্রিল সিলেটের কদমতলী থেকে মসজিদের ইমাম শুয়াইবুর রহমানকে গ্রেফতার করে পুলিশ। পরে তাকে বাতিরকান্দি শাহজালাল জামে মসজিদের সামনে নিয়ে আসা হয়। ওই সময় শুয়াইবুর রহমান জানায়, আসামি রফিক, জাহেদ ও ছালেহ আহমদ মিলে ইমনকে হত্যা করেছে। শামীমা আরও উল্লেখ করেন, মসজিদের সামনের লিন্টারের নিচ থেকে বিষের বোতল, ছুরি ও রক্তমাখা তোয়ালে উদ্ধার করা হয়। তাদের স্বীকারোক্তিতে ঠেঙ্গারগাঁওয়ের মতিন হাজির জমি থেকে ইমনের মাথার খুলি, হাড়গোড় ও চোয়ালের হাড় উদ্ধার করে পুলিশ।

ছাতক উপজেলার নোয়ারাই ইউনিয়নের বাতিরকান্দি গ্রামের সৌদিপ্রবাসী জহুর আলীর ছেলে ও লাফার্জ সুরমা সিমেন্ট কারখানার কমিউনিটি বিদ্যালয়ের শিশু শ্রেণির ছাত্র ইমনকে ২০১৫ সালের ২৭ মার্চ অপহরণ করা হয়। পরে মুক্তিপণের টাকা পাওয়ার পরও অপহরণকারীরা শিশু ইমনকে হত্যা করে।

প্রসঙ্গত, মামলাটি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের নির্দেশের পর সিলেটের দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালে কার্যক্রম শুরু হয়। ২০১৬ সালের ১৯ সেপ্টেম্বর মামলাটি ট্রাইব্যুনালে ওঠে। মামলার কার্যক্রম দ্রুতই এগিয়ে চলছিল। আদালতের বিচারক ছুটিতে থাকায় মাঝখানে মামলার সাক্ষ্যগ্রহণ বন্ধ ছিল। প্রায় এক বছর পর গত ২ আগস্ট থেকে আবার সাক্ষ্যগ্রহণ শুরু করেন আদালত।

পরবর্তী খবর পড়ুন : কানে ফোড়া হলে

তোমার জন্য খোলা জানালা

তোমার জন্য খোলা জানালা

সত্তুরের দশক থেকে শুরু করে পরবর্তী চার দশক এ দেশের ...

বগুড়ায় সাইবার পুলিশ ইউনিটের উদ্বোধন

বগুড়ায় সাইবার পুলিশ ইউনিটের উদ্বোধন

সাইবার অপরাধ দমনে বগুড়ায় জেলা পুলিশের উদ্যোগে গঠিত সাইবার পুলিশ ...

গোদাগাড়ী সীমান্তে বিএসএফের গুলিতে বাংলাদেশি নিহত

গোদাগাড়ী সীমান্তে বিএসএফের গুলিতে বাংলাদেশি নিহত

রাজশাহীর গোদাগাড়ী সীমান্তে বিএসএফের গুলিতে জামাল (৪৫) নামের এক বাংলাদেশি ...

বিরক্ত  ন্যান্সি, বললেন বিদায়

বিরক্ত ন্যান্সি, বললেন বিদায়

বেশ বিরক্ত  বাংলা গানের জনপ্রিয় শিল্পী নাজমুন মুনিরা ন্যান্সি। কোন ...

লক্ষ্মীপুরে দুর্ঘটনায় শিক্ষক নিহত, সড়ক অবরোধ

লক্ষ্মীপুরে দুর্ঘটনায় শিক্ষক নিহত, সড়ক অবরোধ

লক্ষ্মীপুরে পিকআপ ভ্যানের চাপায় মোটর সাইকেল আরোহী মিজানুর রহমান রুবেল ...

কাজের সময় গান শোনা ভাল না খারাপ?

কাজের সময় গান শোনা ভাল না খারাপ?

অনেকেই কাজের সময় গান শুনতে পছন্দ করেন। কেউ কেউ গান ...

আদালতে খালেদা জিয়া

আদালতে খালেদা জিয়া

গ্যাটকো দুর্নীতি মামলায় হাজিরা দিতে বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া কারাগার ...

ফ্লেভার্ড সিগারেট বেশি ক্ষতিকর!

ফ্লেভার্ড সিগারেট বেশি ক্ষতিকর!

ধূমপান স্বাস্থ্যের পক্ষে ক্ষতিকর- এটা সবাই জানি। প্রতিটি সিগারেটের প্যাকেটের ...