ইউজিসিকে রাষ্ট্রপতি

বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর জবাবদিহি নিশ্চিত করতে হবে

প্রকাশ: ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৮      

সমকাল ডেস্ক

দেশের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে শিক্ষার মান নির্ধারণ, তদারকিসহ জবাবদিহি বাড়াতে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনকে (ইউজিসি) আরও উদ্যোগী হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ। একই সঙ্গে উচ্চ শিক্ষা নিয়ে শিক্ষার্থীরা যাতে 'অভিজাত' বেকারে পরিণত না হয়, সেদিকে খেয়াল রাখতে নীতি-নির্ধারকদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন তিনি। গতকাল মঙ্গলবার রাজধানীর সোনারগাঁও হোটেলে বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষকদের মৌলিক ও উদ্ভাবনী গবেষণা এবং প্রকাশনার জন্য 'ইউজিসি স্বর্ণপদক' প্রদান অনুষ্ঠানে তিনি এ আহ্বান জানান। খবর ইউএনবি ও বিডিনিউজের।

ইউজিসিকে তাদের দায়িত্ব স্মরণ করিয়ে দিয়ে রাষ্ট্রপতি বলেন, 'বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ বা সার্কুলার জারি করেই দায়িত্ব শেষ করা যাবে না। অভিভাবকরা অনেক কষ্ট করে তাদের ছেলেমেয়ের উচ্চশিক্ষার ব্যয় বহন করেন। তাই উচ্চশিক্ষা নিতে এসে তারা যাতে শিক্ষিত ও অভিজাত বেকারে পরিণত না হয়, সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে।' রাষ্ট্রপতি বলেন, 'দেশের উচ্চশিক্ষাকে বিশ্বমানে উন্নীত করতে স্বাধীনতার পর পরই জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন গঠন করেন। যা ছিল যুগান্তকারী সিদ্ধান্ত। বর্তমানে

দেশে সরকারি ও

বেসরকারি

বিশ্ববিদ্যালয়ের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে দেড়শ'র ওপরে। এসব প্রতিষ্ঠানে ৩৯ লাখের বেশি শিক্ষার্থী অধ্যয়ন করছে। বিশ্ববিদ্যালয় পর্যায়ে শিক্ষার্থীর সংখ্যা বিবেচনায় বাংলাদেশ এখন চীন, ভারত ও ইন্দোনেশিয়ার পর বিশ্বে চতুর্থ। এটি একটি বিশাল অর্জন।'

উচ্চশিক্ষার প্রতিটি স্তরে মূল্যায়ন ও তত্ত্বাবধান জোরদার করার প্রতি গুরুত্ব দিয়ে আবদুল হামিদ বলেন, 'সময় এবং যুগের চাহিদার পরিপ্রেক্ষিতে উচ্চশিক্ষার ক্ষেত্রে সরকারি ও বেসরকারি উভয় খাতে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সংখ্যা ব্যাপক ভিত্তিতে বেড়েছে। শিক্ষার্থীরাও এসব প্রতিষ্ঠানে ভর্তি হচ্ছে। মেয়াদ শেষে ডিগ্রিও পাচ্ছে। কিন্তু এসব বিশ্ববিদ্যালয় বিশেষ করে বেশ কিছু বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিগ্রির মান নিয়ে ইতিমধ্যে প্রশ্ন উঠেছে। এ ছাড়া অনেক প্রতিষ্ঠানে শিক্ষার পরিবেশ, অবকাঠামো সুযোগ-সুবিধাসহ শিক্ষকস্বল্পতার কারণে মানসম্পন্ন পাঠদান ব্যাহত হচ্ছে। গবেষণা ও গবেষকদের মান নিয়েও ইতিমধ্যে বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রতিবেদন প্রকাশ হয়েছে। তাই এক্ষেত্রে ইউজিসিকে শক্ত ভূমিকা পালন করতে হবে।'

অনুষ্ঠানে মৌলিক ও উদ্ভাবনী গবেষণা এবং প্রকাশনার জন্য ৩৫ জন বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষকের হাতে 'ইউজিসি স্বর্ণপদক' তুলে দেন রাষ্ট্রপতি। এর মধ্যে ১৮ জন শিক্ষক ২০১৬ সালের জন্য এবং ১৭ জন ২০১৭ সালের জন্য এই পদক পেয়েছেন। তারা সনদ ও স্বর্ণপদকের পাশাপাশি বইয়ের জন্য ৫০ হাজার ও প্রবন্ধের জন্য ৩০ হাজার টাকা সম্মানী পেয়েছেন।

ইউজিসি চেয়ারম্যান অধ্যাপক আবদুল মান্নানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ, মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের সচিব সোহরাব হোসাইন, ইউজিসি সদস্য দিল আফরোজা বেগম, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরী, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য হারুন-অর-রশীদ, মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের সচিব মো. সোহরাব হোসাইন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।