নদীর জন্য পদযাত্রা

প্রকাশ: ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮

সমকাল প্রতিবেদক

'বিশ্ব নদী দিবস' সামনে রেখে গতকাল শনিবার সকালে দেশের ১১০টি নদী, পরিবেশ ও সামাজিক সংগঠনের অংশগ্রহণে 'নদীর জন্য পদযাত্রা' অনুষ্ঠিত হয়েছে। 'নদী দিবস উদযাপন পরিষদ বাংলাদেশ' আয়োজিত এই পদযাত্রা ঢাকার বাহাদুরশাহ পার্ক থেকে বুড়িগঙ্গা নদীর সদরঘাটে গিয়ে সমাপ্ত হয়।

পদযাত্রা শুরুর আগে সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয় বাহাদুরশাহ পার্কে। 'নদী দিবস উদযাপন পরিষদ বাংলাদেশ'-এর আহ্বায়ক, ডা. মো, আবদুল মতিনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জাতীয় নদী রক্ষা কমিশনের চেয়ারম্যান ড. মুজিবুর রহমান হাওলাদার। সম্মানিত অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন বিশিষ্ট লেখক সৈয়দ আবুল মকসুদ এবং নদী রক্ষা কমিশনের সদস্য মো. আলাউদ্দিন। অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য দেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের ২৩ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর মো. হুমায়ন কবির, ব্রতীর নির্বাহী পরিচালক শারমীন মুরশিদ, নদী দিবস উদযাপন পরিষদের সদস্য সচিব ও রিভারাইন পিপলের মহাসচিব শেখ রোকন, বুড়িগঙ্গা বাঁচাও আন্দোলনের সদস্য সচিব মিহির বিশ্বাস, ব্লু প্লানেট ইনিশিয়েটিভের নির্বাহী পরিচালক শরীফ জামিল ও সুন্দর জীবনের নির্বাহী পরিচালক সিরাজুল ইসলাম মোল্লা। অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন রিভারাইন পিপলের পরিচালক মোহাম্মদ এজাজ ও হাওরাঞ্চলবাসীর সমন্বয়ক জাকিয়া শিশির।

ড. মুজিবুর রহমান হাওলাদার বলেন, দেশের সব নদী আন্দোলনকারীদের সমন্বয়ে দেশের নদী রক্ষা করা সম্ভব। আমরা আপনাদের সঙ্গে আছি, এর বিরুদ্ধে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। আইনের অভাব নেই, বর্তমানে যে আইন আছে তাতেই নদী রক্ষা সম্ভব।

সৈয়দ আবুল মকসুদ বলেন, আমরা সারাবছর নদী রক্ষায় আন্দোলন করে আসছি। যারা নদী দখলের সঙ্গে জড়িত, তাদের বিরুদ্ধে জনগণকে সচেতন করা এবং তাদের এই জঘন্য অপরাধের বিরুদ্ধে দুর্বার আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে।

মো. আলাউদ্দিন বলেন, নদী কমিশনের পক্ষে এককভাবে এই  সংগঠনের পক্ষে দেশের নদী রক্ষা সম্ভব নয়। তাই সম্মিলিতভাবে বাংলাদেশের প্রকৃতি-পরিবেশ-নদী-অর্থনীতি ও ভবিষ্যৎ উন্নয়নের স্বার্থে নদী রক্ষা করতে হবে।

শারমীন মুরশিদ বলেন, বাংলাদেশের প্রকৃতি-পরিবেশ-নদী-অর্থনীতি ও ভবিষ্যৎ উন্নয়নের স্বার্থে নদীকে রক্ষা করতে হবে। সরকার নদী রক্ষা কমিশন গঠন করে প্রশংসনীয় কাজ করেছে, এটিকে শক্তিশালী করতে হবে।

ডা. মো. আবদুল মতিন বলেন, নদী রক্ষায় সরকারি সিদ্ধান্ত পূর্ণ বাস্তবায়ন নিশ্চিত করতে দেশের নাগরিকদের আন্দোলনে থাকতে হবে।

শেখ রোকন পরিষদের পক্ষে নদী রক্ষায় নির্বিচারে বালু উত্তোলন বন্ধ এবং দখল-দূষণ অবসানে করণীয় বিষয়ে ঘোষণাপত্র ও দাবিনামা পাঠ করেন।

শাহবাগে চলছে নদীবিষয়ক বইমেলা :বিশ্ব নদী দিবস উপলক্ষে গত শুক্রবার থেকে রাজধানীর শাহবাগে তিন দিনব্যাপী নদীবিষয়ক বইমেলা ও প্রদর্শনী শুরু হয়েছে। পাঠক সমাবেশ কেন্দ্রে আয়োজিত এই মেলার উদ্বোধন করেন অ্যাকশনএইড কান্ট্রি ডিরেক্টর ফারাহ্‌ কবির। প্রকাশনা সংস্থা শ্রাবণ প্রকাশনী, নদীবিষয়ক উদ্যোগ রিভারাইন পিপল ও বইনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম যৌথভাবে এর আয়োজক।

মিরপুর চিড়িয়াখানায় আলোচনা সভা :গত শুক্রবার বিকেলে মিরপুর চিড়িয়াখানায় 'যেখানে নদী বয়, সেখানেই জীববৈচিত্র্যময়' শীর্ষক এক আলোচনা সভার আয়োজন করে রিভারাইন পিপল। এতে বক্তব্য রাখেন জীববৈচিত্র্য গবেষক সীমান্ত দীপু, শাহরিয়ার রহমান সিজার, মোহাম্মদ এজাজ, আইরিন সুলতানা প্রমুখ। চিড়িয়াখানায় আগত দর্শনার্থীরা নদী ও জীববৈচিত্র্য সংক্রান্ত এই আলোচনায় অংশ নেয়।

নির্বাচনী ইশতেহারে নদী নিয়ে প্রতিশ্রুতির দাবি :আসন্ন নির্বাচনে রাজনৈতিক দলগুলোর নির্বাচনী ইশতেহারে নদী বাঁচাতে সুনির্দিষ্ট প্রতিশ্রুতির দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশ নদী বাঁচাও আন্দোলন। শুক্রবার সকালে ঢাকায় জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে এক মানববন্ধনে ১৭ দফা সুপারিশ তুলে ধরা হয়। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভূগোল বিভাগের সাবেক অধ্যাপক হাফিজা আক্তার ও নদী বাঁচাও আন্দোলনের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট আনোয়ার হোসেন এতে বক্তব্য রাখেন।

বালু উত্তোলন নিয়ে সিম্পোজিয়াম আজ :এ বছর নদী দিবসের প্রতিপাদ্য সামনে রেখে আজ রোববার রাজধানীর সিরডাপ মিলনায়তনে আয়োজন করা হয়েছে 'নির্বিচার বালু উত্তোলন ও আমাদের নদী' শীর্ষক সিম্পোজিয়াম। রিভারাইন পিপল, অক্সফাম ইন বাংলাদেশ, সিএনআরএস ও জিইউকে যৌথভাবে এর আয়োজক। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন জাতীয় নদী রক্ষা কমিশনের চেয়ারম্যান ড. মুজিবুর রহমান হাওলাদার।