কোম্পানীগঞ্জে সংখ্যালঘুর বাড়িতে আগুন দেওয়ার অভিযোগ

প্রকাশ: ১১ জানুয়ারি ২০১৯

কোম্পানীগঞ্জ (নোয়াখালী) প্রতিনিধি

নোয়াখালীার কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার চরপার্বতী ইউনিয়নের ২ নম্বর ওয়ার্ডে সংখ্যালঘুর বাড়িতে দুর্বৃত্তরা আগুন লাগিয়ে ১০টি খড়ের গাদা পুড়ে ছাই করে দিয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। গত বুধবার গভীর রাতে ওই ওয়ার্ডের স্বরূপ সরকারের বাড়ির ২৬টি পরিবারের খড়ের গাদায় এ আগুন লাগানোর ঘটনা ঘটে। স্থানীয়রা কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার ফায়ার সার্ভিসকে খবর দিলে অগ্নিনির্বাপক কর্মীরা এসে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। এ ব্যাপারে কোম্পানীগঞ্জ থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

এলাকাবাসী ও অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, ওই এলাকার চিহ্নিত সন্ত্রাসী ও মাদকসেবী আকাশ, ওসামা, ফকির, আফজাল, সাইফুল ও সজীবের নেতৃত্বে একদল সন্ত্রাসী গত বুধবার গভীর রাতে স্বরূপ সরকারের বাড়িতে আগুন লাগিয়ে দেয়। এতে ১০টি খড়ের গাদা পুড়ে যায়। বিষয়টি কোম্পানীগঞ্জ থানাকে লিখিতভাবে জানালে অপরাধীরা ক্ষিপ্ত হয়ে বাড়ির লোকজনকে হত্যার হুমকি দেয়। ওই বাড়ির বাসিন্দা ও স্থানীয় শ্রী শ্রী জগন্নাথ মন্দির কমিটির সভাপতি হারানচন্দ্র মজুমাদার সমকালকে বলেন, আমাদের বিভিন্ন ধর্মীয় উৎসবের সময় এলে এই সন্ত্রাসীরা পান চুরি, মাছ চুরি, নারিকেল-সুপারি চুরি এবং প্রকাশ্যে মদ, গাঁজা খায় ও জুয়ার আসর

বসায়। আমরা বাধা দিলে আমাদের বিভিন্নভাবে হুমকি দিয়ে থাকে। একটি পক্ষ আমাদের বাড়ি থেকে উচ্ছেদের চক্রান্তে লিপ্ত রয়েছে।

বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সম্পাদক অরবিন্দ ভৌমিক ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে সাংবাদিকদের একই কথা বলেন। তবে এ বিষয়ে অভিযুক্তদের বক্তব্য পাওয়া যায়নি। কোম্পানীগঞ্জ থানার ওসি মো. আসাদুজ্জামান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।