গাইবান্ধা-৩

বিএনপি প্রার্থীসহ তিনজনের মনোনয়ন প্রত্যাহার

প্রকাশ: ১১ জানুয়ারি ২০১৯

গাইবান্ধা ও সাদুল্যাপুর প্রতিনিধি

গাইবান্ধা-৩ (পলাশবাড়ী-সাদুল্যাপুর) আসনের সংসদ নির্বাচন থেকে মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করে নিয়েছেন বিএনপি প্রার্থীসহ তিনজন। তারা হলেন- ঐক্যফ্রন্ট সমর্থিত বিএনপির প্রার্থী ডা. সৈয়দ মইনুল হাসান সাদিক, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের প্রার্থী হানিফ দেওয়ান ও বাসদ মনোনীত বাম গণতান্ত্রিক জোটের প্রার্থী সাদেকুল ইসলাম। গতকাল বৃহস্পতিবার মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষ দিনে তারা রিটার্নিং কর্মকর্তা ও জেলা প্রশাসকের কার্যালয় থেকে তাদের মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করে নেন।

গতকাল দুপুরে শহরের সার্কুলার রোডে দলীয় কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে বিএনপি প্রার্থী সাদিক অভিযোগ করে বলেন, ভোটের আগে ও পরে তিন দিন ইন্টারনেট বন্ধ করা হয়েছে। যাতে করে ভোট কারচুপির সংবাদ প্রকাশ না পায়। যেখানে ভোটের ফলাফল শিট আগে থেকেই তৈরি করা আছে, সেই নির্বাচনে অংশ নিয়ে নেতাকর্মীদের মামলা, হামলা-নির্যাতনের মুখে ঠেলে দিতে চাই না। তাই কেন্দ্রের সিদ্ধান্তে মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করে নিয়েছি।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন সাবেক সাংসদ ও জেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি সাইফুল আলম সাজা, শহর বিএনপির সভাপতি শহীদুজ্জামান শহীদ, জেলা বিএনপির

সাংগঠনিক সম্পাদক আনিসুর রহমান নাদিম, বিএনপি নেতা খন্দকার ওমর ফারুক প্রমুখ।

এদিকে, বাসদের প্রার্থী কৃষিবিদ সাদেকুল ইসলাম গোলাপ গতকাল মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের পর সাংবাদিকদের কাছে অভিযোগ করেন, এই সরকারের অধীনে সুষ্ঠু নির্বাচন হওয়ার কোনো সম্ভাবনা নেই। সে কারণে তার দল বাসদ ও বাম গণতান্ত্রিক জোটের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী তিনি নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়িয়েছেন।

ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের প্রার্থী হানিফ দেওয়ান বলেন, দলের কেন্দ্রীয় নির্দেশনা মোতাবেক তিনি মনোনয়ন প্রত্যাহার করে নিয়েছেন।

এ আসনের আটজন প্রার্থীর মধ্যে তিনজন মনোনয়ন প্রত্যাহার করে নিলেন। এখন নির্বাচনী লড়াইয়ে রইলেন আওয়ামী লীগের ডা. ইউনুস আলী সরকার, জাতীয় পাটির ব্যারিস্টার দিলারা খন্দকার শিল্পি, জাসদের এসএম খাদেমুল ইসলাম খুদি, ন্যাশনাল পিপলস পার্টির মিজানুর রহমান তিতু এবং স্বতন্ত্র আবু জাফর মো. জাহিদ।

৩০ ডিসেম্বর সারাদেশে একযোগে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হলেও গাইবান্ধা-৩ আসনের ঐক্যফ্রন্ট প্রার্থী ড. টি আই এম ফজলে রাব্বী চৌধুরীর মৃত্যুতে সেখানে নির্বাচন স্থগিত করা হয়। পরে ২৭ জানুয়ারি ভোটের দিন ঠিক করে নির্বাচন কমিশন পুনঃতফসিল ঘোষণা করে।