মুক্তিযোদ্ধা কোটা পুনর্বহালের দাবিতে আলটিমেটাম

প্রকাশ: ০৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৯      

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক

সরকারি চাকরিতে মুক্তিযোদ্ধা কোটা পুনর্বহালসহ ছয় দফা দাবিতে সাত দিনের আলটিমেটাম দিয়ে শাহবাগ মোড় থেকে অবস্থান কর্মসূচি প্রত্যাহার করেছে মুক্তিযোদ্ধার সন্তান ও প্রজন্ম সমন্বয় পরিষদ। ৩০ শতাংশ মুক্তিযোদ্ধা কোটা বহালের দাবিতে মুক্তিযোদ্ধার সন্তান ও প্রজন্মের ব্যানারে সহস্রাধিক চাকরিপ্রত্যাশী গতকাল শুক্রবার বিকেল সাড়ে ৪টায় জাতীয় জাদুঘরের সামনে মানববন্ধন করেন। এর পরে সন্ধ্যা থেকে শাহবাগ মোড় অবরোধ করে বিক্ষোভ শুরু করেন তারা। এ অবরোধের কারণে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়।

পরে রাত সাড়ে ৯টার দিকে সংবাদ সম্মেলন করে সংগঠনটির আহ্বায়ক আমিনুল ইসলাম বুলবুল ছয় দফা দাবি আগামী সাত দিনের মধ্যে মেনে নেওয়ার আলটিমেটাম দেন।

মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ড ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখার যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এএসএম আল সনেট জানান, উল্লিখিত সময়ের মধ্যে দাবি মেনে নেওয়া না হলে আরও বৃহৎ কর্মসূচি দেওয়া হবে।

এর আগে গত ২২ জানুয়ারি তারা একই দাবিতে শাহবাগ অবরোধ করেছিলেন। সেদিন ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন ও সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী ঘটনাস্থলে গিয়ে সংহতি প্রকাশ করে তাদের দাবির কথা প্রধানমন্ত্রীর কাছে বলার আশ্বাস দেন। ছাত্রলীগের দুই নেতা জনভোগান্তি না করার অনুরোধ জানালে আন্দোলনকারীরা কোটা বহালের সুস্পষ্ট ঘোষণা না এলে ২৭ জানুয়ারি আবারও দেশব্যাপী অবস্থান কর্মসূচি পালনের ঘোষণা দেন।

আন্দোলনকারীদের ছয় দফা দাবির মধ্যে রয়েছে- জাতির পিতা ও তার পরিবারসহ মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের 'অবমাননাকারী'দের বিচার এবং দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি নিশ্চিত করা; সরকারি চাকরিতে ৩০ শতাংশ মুক্তিযোদ্ধা কোটা পুনর্বহাল, সংরক্ষণ; বিশেষ কমিশন গঠন করে প্রিলিমিনারি থেকেই শতভাগ কোটা বাস্তবায়ন এবং স্বাধীনতা-পরবর্তী সময় থেকে বর্তমান সময় পর্যন্ত মুক্তিযোদ্ধা কোটায় সংরক্ষিত পদগুলো বিশেষ নিয়োগের মাধ্যমে পূরণ করা।