খালেদা জিয়ার জেলে থাকার সঙ্গে কোনো রাজনীতি নেই ওবায়দুল কাদের

প্রকাশ: ০৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৯      

সমকাল প্রতিবেদক

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, দুর্নীতি মামলায় সাজা পাওয়া বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার জেলে থাকার সঙ্গে রাজনীতির কোনো সম্পর্ক নেই। এটা আদালতের এখতিয়ার। আদালতই তাকে দ দিয়েছেন এবং কারাগারে পাঠিয়েছেন। এখন তাকে মুক্তিও দিতে পারেন আদালত।

গতকাল শুক্রবার আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার ধানমি র রাজনৈতিক কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে ওবায়দুল কাদের এসব কথা বলেন। খালেদা জিয়ার কারাবাসের বছরপূর্তি-সংক্রান্ত প্রশ্নের জবাবে তিনি আরও বলেন, খালেদা জিয়াকে মিথ্যা মামলায় জেলে পাঠানোর যে অভিযোগ বিএনপি করছে, তা অসত্য। তার বিরুদ্ধে মামলায় সরকারের কোনো হস্তক্ষেপ নেই।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) এবং হল সংসদ নির্বাচনে ছাত্রলীগ যেন জয়ী হতে পারে, সে বিষয়টি আওয়ামী লীগ সিরিয়াসলি (গুরুত্বের সঙ্গে) নিয়েছে। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে দলের চারজন নেতাকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। তারা ক্যাম্পাসের পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করছেন। ছাত্রলীগ এ নির্বাচনে গণতান্ত্রিকভাবে জয়ী হবে বলে

আশা করছি।

জাতীয় নির্বাচনের মতো ডাকসুতে প্যানেল দেওয়ার ক্ষেত্রেও ছাত্রলীগ জোটের পথে হাঁটতে পারে বলে ইঙ্গিত দিয়ে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, জাতীয় রাজনীতির পোলারাইজেশনের প্রভাব ছাত্ররাজনীতিতেও পড়ে। এখন প্রতিপক্ষ যদি একটা জোট করতে চায়, আমাদেরও একটা জোটের কথা ভাবতে হবে। দেখতে হবে, কারা কীভাবে পোলারাইজেশন করছে, এলায়েন্স করছে। সে অনুযায়ী চিন্তাভাবনা করে সিদ্ধান্তও নেওয়া হবে।

মনোনয়ন ফরম থেকে আয় ৬ কোটি টাকা :এক প্রশ্নের জবাবে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জানান, উপজেলা নির্বাচন সামনে রেখে চেয়ারম্যান, ভাইস চেয়ারম্যান ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে দলীয় মনোনয়ন ফরম বিক্রি করে আওয়ামী লীগ প্রায় ৬ কোটি টাকা আয় করেছে।

তিনি বলেন, উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে গত চার দিনে দলীয় ফরম বিক্রি হয়েছে চেয়ারম্যান পদে ২ হাজার ৭৬টি এবং ভাইস চেয়ারম্যান ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৩ হাজার ৪৮৫টি। এই হিসাবে আওয়ামী লীগের আয় হয়েছে ৫ কোটি ৮৯ লাখ ৫ হাজার টাকা।

আওয়ামী লীগ আসন্ন উপজেলা পরিষদ নির্বাচন সামনে রেখে দলীয় মনোনয়নপ্রত্যাশীদের কাছে ৪ থেকে ৭ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত মনোনয়নপত্রের ফরম বিক্রি কার্যক্রম চালায়। এ সময় প্রতিটি ফরম বাবদ চেয়ারম্যান পদে ২০ হাজার টাকা এবং ভাইস চেয়ারম্যান এবং মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৫ হাজার টাকা করে জমা দিতে হয়েছে মনোনয়নপ্রত্যাশীদের।

সংবাদ সম্মেলনে দলের কেন্দ্রীয় নেতাদের মধ্যে আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন, ড. আবদুস সোবহান গোলাপ, সুজিত রায় নন্দী, ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া, আনোয়ার হোসেন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।