নির্মাণাধীন ভবনের কাঠ মাথায় পড়ে কলেজছাত্র আহত

প্রকাশ: ১২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

সমকাল প্রতিবেদক

রাজধানীর শান্তিবাগের বাসা থেকে ক্লাসে যাওয়ার জন্য বের হয় আদমজী ক্যান্টনমেন্ট কলেজের ছাত্র ফাহিম সিকদার (১৭)। হেঁটে কিছুদূর যেতেই নির্মাণাধীন পাঁচতলা ভবন থেকে ভারী কাঠ পড়ে তার মাথায়। রক্তাক্ত হয় ফাহিমের শরীর। অল্প সময়েই অচেতন হয় সে। স্বজনরা তাকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেন। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, ফাহিমের অবস্থা গুরুতর। তাকে নিউরোসার্জারি ইউনিটে পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে।

ফাহিমের মা মিলি বেগম জানান, তার ছেলে কলেজে যেতে প্রতিদিন সকাল ৭টার দিকে বাসা থেকে বের হয়; মালিবাগ মোড়ে গিয়ে বাসে ওঠে। তার আগেই বাসার কাছে নির্মাণাধীন ভবন থেকে একটি কাঠ তার মাথার ওপর পড়লে সে রাস্তায় বসে পড়ে। স্থানীয় লোকজনের কাছে খবর পেয়ে তিনি ছেলেকে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করে হাসপাতালে নেন। মিলি বেগম বলেন, ফাহিম তার একমাত্র সন্তান। বহু কষ্টে ছেলেকে মানুষ করছেন। কোনো সতর্কতা ছাড়াই রাস্তার পাশে ভবনটির কাজ করা হচ্ছিল। এতে তার ছেলের সর্বনাশ হলো।

স্বজনরা বলেন, ফাহিমের বাবা আজিম সিকদার সৌদি আরবে থাকেন। ফাহিম একাই তার মায়ের সঙ্গে ২১৮ নম্বর শান্তিবাগের একটি বাসায়  ভাড়া থাকে। সে আদমজী ক্যান্টনমেন্ট কলেজে একাদশ শ্রেণির ছাত্র।

চিকিৎসকদের বরাত দিয়ে ঢাকা মেডিকেল কলেজ পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ পরিদর্শক বাচ্চু মিয়া বলেন, ফাহিমের মাথায় প্রচণ্ড আঘাত লেগেছে। তার অবস্থা আশঙ্কাজনক। তাকে নিউরোসার্জারি ইউনিটে ভর্তি করে পর্যবেক্ষণে রেখেছেন চিকিৎসকরা।

শাহজাহানপুর থানার ওসি সফিকুল ইসলাম মোল্লা বলেন, ঘটনা শুনে পুলিশের একটি দল নির্মাণাধীন ভবনটি পরিদর্শন করেছে। সেখানে পাঁচতলায় কাজ চললেও নিরাপত্তা বেষ্টনী দেখা গেছে। তবে সেটা পর্যাপ্ত কি-না, তা যাচাই করা হচ্ছে। কারও কোনো গাফিলতি ছিল কি-না, সেই বিষয়েও তদন্ত চলছে। এ বিষয়ে ভুক্তভোগী ছাত্রের পরিবার থানায় অভিযোগ দিলে প্রয়োজন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানান ওসি।