চট্টগ্রামে শ্রমিক বিক্ষোভে পুলিশের লাঠিচার্জ ফটো সাংবাদিক লাঞ্ছিত

প্রকাশ: ১৪ মার্চ ২০১৯

চট্টগ্রাম ব্যুরো

চট্টগ্রাম নগরের বায়েজিদ থানার বালুছড়া এলাকায় শ্রমিকদের বিক্ষোভে পুলিশ লাঠিচার্জ করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এ সময় ছবি তুলতে গিয়ে পুলিশের হাতে এক ফটো সাংবাদিক লাঞ্ছিত হয়েছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। জানা গেছে, গতকাল বুধবার বিকেলে নানা দাবিতে চট্টগ্রাম-খাগড়াছড়ি সড়কের বালুছড়া এলাকায় সড়ক অবরোধ করে ফোরএইচ গ্রুপের মালিকানাধীন কারখানার শ্রমিকরা। এ সময় বিক্ষোভরত শ্রমিকদের সড়ক থেকে সরাতে লাঠিচার্জ করে পুলিশ। লাঠিচার্জের ছবি তুলতে গেলে প্রথম আলোর চট্টগ্রাম অফিসের ফটো সাংবাদিক জুয়েল শীলকে লাঞ্ছিত করেন বায়েজিদ থানার সহকারী উপ-পরিদর্শক শরিফুল।

এ প্রসঙ্গে বায়েজিদ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আতাউর রহমান সমকালকে বলেন, 'কিছু শ্রমিক বিক্ষোভ করতে করতে হঠাৎ সড়কে অবস্থান নিয়ে অবরোধ করার চেষ্টা করে। সড়কে যানবাহন চলাচল স্বাভাবিক করতে পুলিশ তাদেরকে সড়ক থেকে সরিয়ে দেয়। পুলিশ কোনো শ্রমিকের ওপর লাঠিচার্জ করেনি। এ সময় এক ফটো সাংবাদিকের সঙ্গে এক পুলিশের ভুল বোঝাবুঝি হয়। পরে বিষয়টি মিটমাট করা হয়। কোনো পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে সাংবাদিককে লাঞ্ছিত

করার অভিযোগ পেলে অবশ্যই ব্যবস্থা নেব।'

ফটো সাংবাদিক জুয়েল শীল বলেন, 'শ্রমিকরা বিক্ষোভ করার সময় পুলিশ লাঠিচার্জ করছিল। লাঠিচার্জের ছবি তুলতে গেলে সেখানে দায়িত্বে থাকা এএসআই শরিফুলের নেতৃত্বে কয়েক পুলিশ সদস্য আমার ওপর চড়াও হয়। এ সময় আমার ক্যামেরা কেড়ে নেয় তারা। পরে লাঠিচার্জের তোলা ছবিগুলো মুছে দেয় পুলিশ সদস্যরা। এ সময় তারা অকথ্য ভাষায় গালাগালিও করে।'

এদিকে, ফটো সাংবাদিক জুয়েল শীলকে লাঞ্ছিত করার ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন চট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়ন, বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন এবং চট্টগ্রাম ফটোজার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশনের নেতারা। পৃথক বিবৃতিতে নেতারা ফটো সাংবাদিক জুয়েল শীলকে লাঞ্ছিত করার ঘটনায় অভিযুক্ত পুলিশ সদস্যদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানান। কোনো ব্যবস্থা না নিলে কঠোর কর্মসূচিতে যাওয়ার ঘোষণাও দেন তারা।