এলোমেলো খেয়াঘাট থাকবে না সদরঘাটে - খালিদ মাহমুদ চৌধুরী

প্রকাশ: ১৪ মার্চ ২০১৯

কেরানীগঞ্জ (ঢাকা) প্রতিনিধি

নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী বলেছেন, সদরঘাটের আশপাশে কোনোভাবেই যেখানে সেখানে খেয়াঘাট থাকতে দেওয়া হবে না। এলোমেলোভাবে নৌকা চলাচল করায় নৌ দুর্ঘটনা বাড়ছে দাবি করে প্রতিমন্ত্রী বলেন, যান্ত্রিক যুগে ম্যানুয়াল কোনো সিস্টেম থাকতে পারে না, এটা সাংঘর্ষিক।

বুধবার বিকেলে দক্ষিণ কেরানীগঞ্জের আগানগর গুদারাঘাট পরিদর্শনে গিয়ে মাঝিদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে খালিদ মাহমুদ চৌধুরী এসব কথা বলেন। এ সময় স্থানীয় সংসদ সদস্য বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজসম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বিপুও উপস্থিত ছিলেন।

খালিদ মাহমুদ চৌধুরী বলেন, ঘাট এলোমেলো থাকবে না, পরিকল্পিত

হবে। এ ব্যাপারে আলোচনা করে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে জানিয়ে তিনি আরও বলেন, কেরানীগঞ্জবাসীর যাতে কোনো অসুবিধা না হয়; সে জন্য আমরা কাজ করব।

এ সংক্রান্ত মহাপরিকল্পনা হাতে নেওয়া হয়েছে জানিয়ে নৌ-প্রতিমন্ত্রী বলেন, পরিকল্পনা বাস্তবায়নে এরই মধ্যে অর্থ বরাদ্দ হয়েছে। এটা বাস্তবায়ন করা হবে। বুড়িগঙ্গা, বালু, তুরাগ এবং শীতলক্ষ্যার সঙ্গে ধলেশ্বরীও যুক্ত হবে।

বুড়িগঙ্গায় ঘন ঘন দুর্ঘটনা এড়াতে মাঝিদের সতর্ক থাকার আহ্বান জানিয়ে বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বলেন, সদরঘাটে নতুন ঘাট নির্মিত না হওয়া পর্যন্ত নৌকা মাঝিদের পুরনো ঘাট বহাল থাকবে। সদরঘাট টার্মিনালটি কীভাবে সরালে ভালো হয়, তা নিয়ে আলোচনা হবে। এর আগে পর্যন্ত নৌকাও চলাচল করবে।

দুই প্রতিমন্ত্রীর সঙ্গে এ সময় উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ-পরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআইডব্লিউটিএ) সচিব আব্দুস সামাদ, চেয়ারম্যান কমডোর মাহবুবুল ইসলাম, পরিচালক শফিকুল হক প্রমুখ। মতবিনিময় শেষে দুই প্রতিমন্ত্রী লঞ্চে চড়ে সদরঘাট টার্মিনাল ও আশপাশের এলাকা পরিদর্শন করেন।