ডাকসু নির্বাচন সুষ্ঠু হয়েছে বলেই বর্জনকারীরাও জয় পেয়েছে :তথ্যমন্ত্রী

প্রকাশ: ১৫ মার্চ ২০১৯      

চবি প্রতিনিধি

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) নির্বাচন সুষ্ঠু হয়েছে বলেই যারা নির্বাচন বর্জনের ঘোষণা দিয়েছিলেন তারাও জয়লাভ করেছেন। গতকাল বৃহস্পতিবার চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) রসায়ন বিভাগের সুবর্ণজয়ন্তী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ এ মন্তব্য করেন।

তিনি বলেন, কিছু ত্রুটি-বিচ্যুতির কথা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ স্বীকার করেছে। ২৮ বছর পর যে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে এটিই ইতিবাচক দিক। একটি হলে কিছু ভুলত্রুটির কথা বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন স্বীকার করেছে এবং এটি নিয়ে তদন্ত হচ্ছে।

চবি রসায়ন বিভাগের প্রাক্তন এই শিক্ষার্থী বলেন, নেতৃত্ব বিকাশের জন্য ছাত্র সংসদের বিকল্প নেই। চাকসুর নির্বাচন যখন হয়েছিল তখন সর্বদলীয় ছাত্র ঐক্যের নির্বাচন পরিচালনা কমিটির চেয়ারম্যান ছিলেন তিনি। নেতৃত্ব গড়ে তোলার ক্ষেত্রে এটি খুব গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। তিনি আশা করেন খুব দ্রুত চবি কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের নির্বাচনও অনুষ্ঠিত হবে।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, আশির দশকে মালয়েশিয়ার শিক্ষার্থীরা আমাদের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে পড়তে আসতেন। এখন

আমাদের শিক্ষার্থীরা সেখানে পড়তে যান। বঙ্গবন্ধু বেঁচে থাকলে অনেক আগেই উন্নত দেশের কাতারে পৌঁছত বাংলাদেশ।

সাবেক মুখ্য সচিব আবদুল করিম বলেন, বর্তমানে বিশ্বে উন্নয়নের রোল মডেল হচ্ছে বাংলাদেশ। শিশুমৃত্যুর হার, মাতৃমৃত্যুর হার, নারীর ক্ষমতায়নে সরকার কাজ করেছে। সবার সম্মিলিত চেষ্টায় আমরা ২০২১ সালে মধ্যম আয়ের দেশ, ২০৪১ সালে উন্নত

দেশ এবং ২০৭১ সালে উন্নত বদ্বীপে পরিণত হবো।

চবি রসায়ন বিভাগের সভাপতি ও সুবর্ণজয়ন্তী আয়োজক কমিটির আহ্বায়ক অধ্যাপক ড. মনির উদ্দিনের সভাপতিত্বে এবং রসায়ন বিভাগের অধ্যাপক ড. জয়নুল আবেদীন সিদ্দিকী ও অধ্যাপক ড. এস এম আবে কাউছারের পরিচালনায় অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন চবি উপাচার্য অধ্যাপক ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরী, চবি উপ-উপাচার্য ড. শিরীণ আখতার, চবি বিজ্ঞান অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ সফিউল আলম প্রমুখ।