রূপগঞ্জে ছাত্রলীগ নেতাকে পায়ের রগ কেটে হত্যা

প্রকাশ: ১৫ মার্চ ২০১৯      

রূপগঞ্জ (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে রাজনৈতিক প্রতিহিংসার জেরে ছাত্রলীগের এক নেতাকে পায়ের রগ কেটে হত্যা করা হয়েছে। গত বুধবার রাতে উপজেলার ভোলাব ইউনিয়নের টাওড়া এলাকায় এ হত্যাকাণ্ড ঘটে। নিহত সোহেল মিয়া (২৭) ভোলাব ইউনিয়ন ছাত্রলীগের প্রচার সম্পাদক ছিলেন। তিনি টাওড়া এলাকার মজিবুর রহমানের ছেলে।

সোহেলের বাবা মজিবুর রহমান অভিযোগ করেন, রাজনৈতিক প্রতিহিংসার জেরে ভোলাব ইউনিয়নের ১ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য বিএনপি সমর্থক শরীফ মিয়া ও তার লোকজন সব সময়ই ছাত্রলীগ নেতা সোহেল মিয়ার পেছনে লেগে থাকত। এর আগেও একাধিকবার সোহেলসহ তার লোকজনের ওপর হামলা চালিয়েছে তারা।

মজিবুর রহমান জানান, বুধবার রাত ৯টার দিকে সোহেল ও তার বন্ধু সিরাজ মিয়া টাওড়া বাজার থেকে বাড়ি ফিরছিলেন। এ সময় আদর্শ বিদ্যাপীঠের সামনে এলে ইউপি সদস্য শরীফের নেতৃত্বে লোকমান, কামাল, সাদ্দত আলীসহ ৫-৭ জন সোহেলকে তুলে নিয়ে গিয়ে দুই পায়ের রগ কেটে দেয়। এ ছাড়া পিটিয়ে শরীরের বিভিন্ন অংশ থেঁতলে দিয়ে রাস্তার পাশে ফেলে রাখে। এ সময় তিনি ঘটনাস্থলে ছুটে গিয়ে ইউপি সদস্য শরীফসহ তার লোকজনকে পালাতে দেখেন। সোহেলকে উদ্ধার করে ঢাকায় নেওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়।

এদিকে, হত্যাকাণ্ডের ঘটনাকে কেন্দ্র করে এলাকায় উত্তেজনার সৃষ্টি হয়। পরে ভোলাব তদন্তকেন্দ্রের ইনচার্জ শহিদুল আলমসহ পুলিশ সদস্যরা ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন।

রূপগঞ্জ থানার ওসি মাহমুদুল হাসান বলেন, এ ঘটনায় সোহেলের বন্ধু সিরাজসহ সন্দেহভাজন চারজনকে আটক করা হয়েছে। মামলার প্রস্তুতি চলছে। জড়িতদের চিহ্নিত করে দ্রুত আইনের আওতায় আনা হবে।