এক এগারোর কুশীলবদের সঙ্গে হাত মিলিয়েছে বিএনপি তথ্যমন্ত্রী

প্রকাশ: ১২ জুন ২০১৯

সমকাল প্রতিবেদক

তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, আলোচিত ১/১১-র কুশীলবরা এখনও সক্রিয়। তারা এখনও অগণতান্ত্রিক সরকার কায়েমের স্বপ্ন দেখেন। মাঝেমধ্যে বিচ্ছিন্ন কথা বলে গণতান্ত্রিক সরকারকে প্রশ্নবিদ্ধ করার চেষ্টা করেন। তাদের সঙ্গে তাই সবাইকে সজাগ থাকতে হবে, যাতে কেউ পেছন থেকে ছুরি মারতে না পারে। ১/১১-র এ কুশীলবদের সঙ্গে বিএনপি হাত মিলিয়েছে বলেও অভিযোগ করেন আওয়ামী

লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক হাছান মাহমুদ।

গতকাল মঙ্গলবার আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার ধানমণ্ডির রাজনৈতিক কার্যালয়ে দলের প্রচার ও প্রকাশনা উপ-কমিটির সভায় তিনি এসব কথা বলেন। তিনি বলেন, ১/১১-র কুশীলবদের সঙ্গে আজ বিএনপিও হাত মিলিয়েছে। সেজন্যই ২০১৪ সালে

নির্বাচন বর্জন করতে চেয়েছিল। একাদশ জাতীয় নির্বাচনকেও প্রশ্নবিদ্ধ করার উদ্দেশ্য ছিল তাদের। কিন্তু শেখ হাসিনার প্রচেষ্টায় গণতন্ত্র মুক্তি পেয়েছে। গণতান্ত্রিক অভিযাত্রা অব্যাহত রয়েছে।

১/১১-র সেনা সমর্থিত তত্ত্বাবধায়ক সরকার আমলে আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ হাসিনাকে গ্রেফতার করা হয়। দীর্ঘ ১১ মাস কারাভোগের পর ২০০৮ সালে তাকে মুক্তি দিতে বাধ্য হয় তৎকালীন সরকার। সে প্রসঙ্গ টেনে তথ্যমন্ত্রী বলেন, আওয়ামী লীগের আন্দোলনের কারণে সেদিন খালেদা জিয়াও মুক্তি পেয়েছিলেন। আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীরা শুধু শেখ হাসিনার জন্য নয়, সব রাজবন্দির মুক্তির জন্য লড়াই করেছেন।

বিএনপিতে চলমান অস্থিরতার বহিঃপ্রকাশ হিসেবে কর্মীরা নিজেদের কার্যালয়ে তালা দিয়েছে বলে মন্তব্য করেন ড. হাছান মাহমুদ। তিনি বলেন, যারা নিজেদের অফিসে তালা দেয়, তারা কীভাবে সরকারের বিরুদ্ধে আন্দোলন করবে তা জানা নেই। তালা মারার মধ্য দিয়ে প্রমাণ হয়, দলটি বিশৃঙ্খলা ও নেতৃত্বহীনতায় ভুগছে।

সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন দলের ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তিবিষয়ক মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার, আওয়ামী লীগের উপ-প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আমিনুল ইসলাম আমিন, প্রধানমন্ত্রীর উপ-প্রেস সচিব আশরাফ সিদ্দিকী বিটু প্রমুখ।