নওগাঁয় ট্রাকচাপায় প্রাণ গেল তিন বন্ধুর

প্রকাশ: ১৩ জুন ২০১৯

সমকাল ডেস্ক

দেশের বিভিন্ন স্থানে সড়ক দুর্ঘটনায় প্রাণ হারিয়েছেন ১০ জন। এর মধ্যে নওগাঁর মহাদেবপুরে ট্রাকচাপায় মোটরসাইকেল আরোহী ছাত্রলীগ নেতাকর্মী তিন বন্ধু ও পাবনার ঈশ্বরদীতে অটোরিকশার ধাক্কায় চাচা-ভাতিজা নিহত হয়েছেন। চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গায় ট্রাক্টরের ধাক্কায় মায়ের হাত থেকে ছিটকে চাকার নিচে পড়ে নিহত হয়েছে ছয় মাসের এক শিশু। মঙ্গলবার রাত ও বুধবারের এসব দুর্ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও বেশ কয়েকজন। এসব স্থান থেকে আমাদের প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর-

নওগাঁ : নওগাঁর মহাদেবপুর উপজেলার মহিষবাথান মোড়ে মঙ্গলবার রাত ৯টার দিকে মোটরসাইকেলকে চাপা দিয়ে পালিয়ে যায় একটি ট্রাক। এতে মোটরসাইকেলে থাকা তিনজনের মধ্যে ঘটনাস্থলেই দু'জনের মৃত্যু হয়। হাসপাতালে নেওয়ার পর আরেকজন মারা যান। নিহতরা হলেন- উপজেলার বিজয়পুর গ্রামের আব্দুস সামাদের ছেলে সাগর হোসেন (১৯), গোলাম রসূলের ছেলে লোহানী ইসলাম (১৮) ও দুলাল হোসেনর ছেলে শরীফ উদ্দিন (১৯)। এর মধ্যে সাগর মহাদেবপুর জাহাঙ্গীরপুর সরকারি ডিগ্রি কলেজের ছাত্র এবং লোহানী ও শরীফ নওগাঁ সরকারি কলেজের একাদশ শ্রেণির ছাত্র। তারা তিনজনই স্থানীয় ছাত্রলীগের রাজনীতির সঙ্গে জড়িত ছিলেন।

মহাদেবপুর থানার ওসি সাজ্জাদ হোসেন জানান, তিন বন্ধু একই মোটরসাইকেলে করে বিজয়পুর থেকে উপজেলা সদরে আসছিলেন। পথে এ দুর্ঘটনা ঘটে। তিনি আরও বলেন, গতকাল বুধবার সকাল ১১টার দিকে নিহত তিনজনের জানাজা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে লাশ দাফন করা হয়। গ্রামের তিন তরুণের এমন মৃত্যুতে পুরো এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে। পরিবারগুলোতে চলছে শোকের মাতম।

ঈশ্বরদী :পাবনার ঈশ্বরদীতে বুধবার দুপুরে পাবনা-ঈশ্বরদী মহাসড়কের হেমায়েতপুরে ব্যাটারিচালিত ইজিবাইকের সঙ্গে মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষে দু'জন নিহত হয়েছেন। তারা হলেন- পাবনার বলরামপুর এলাকার আমিন উদ্দিনের ছেলে ওয়ালিদ হোসেন (২০) ও তার ভাতিজা প্রান্ত (১৫)। পুলিশ জানায়, তারা দু'জন মোটরসাইকেলে বাড়ি থেকে বিসিক শিল্পনগরীতে নিজেদের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে যাচ্ছিলেন। পথে অটোরিকশার ধাক্কায় গুরুতর আহত হন তারা। পাবনা জেনারেল হাসপাতালে নেওয়া হলে চিকিৎসক দু'জনকেই মৃত ঘোষণা করেন।

চুয়াডাঙ্গা :আলমডাঙ্গা উপজেলার হারদী থানাপাড়ায় বাবা-মায়ের সামনে ট্রাক্টরের চাকায় পিষ্ট হয়ে নিহত হয়েছে ছয় মাসের শিশু জুনায়েত। স্থানীয়রা জানান, বুধবার সকালে আলমডাঙ্গায় শ্বশুরবাড়ি থেকে স্ত্রী ও ছেলে নিয়ে মোটরসাইকেলে বাড়ি ফিরছিলেন কুষ্টিয়ার মিরপুর

উপজেলার মালিহাদ গ্রামের মিন্টু। পথে হারদী থানাপাড়ায় পৌঁছলে সামনে থেকে আসা একটি বালু ভর্তি ট্রাক্টরের ধাক্কায় মোটরসাইকেলের পেছন থেকে তার স্ত্রী মৌসুমী ও ছেলে জুনায়েত ছিটকে পড়ে। তখন মৌসুমির হাত থেকে পড়ে যায় জুনায়েত। এ সময় ট্রাক্টরের চাকায় পিষ্ট হয়ে ঘটনাস্থলেই জুনায়েতের মৃত্যু হয়। পরে স্থানীয়রা ট্রাক্টরটি আটক করলেও চালক পালিয়ে যায়।

নিহতের পারিবারিক সূত্র জানায়, বিয়ের ১০ বছরেও সন্তান না হওয়ায় ভাই পিন্টুর ছেলে জুনায়েতকে দত্তক নিয়েছিলেন মিন্টু। সেই ছেলেকে নিয়েই বাবার বাড়ি বেড়াতে গিয়েছিলেন স্ত্রী মৌসুমী।

কালিয়াকৈর :গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলার চন্দ্রা ত্রিমোড় এলাকায় বুধবার বিকেলে ট্রাকচাপায় নুর খান (৫০) নামের সেনাবাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত এক সদস্য নিহত হয়েছেন। পুলিশ জানায়, নুর খান পাবনার বেড়া উপজেলার বিশালিয়া গ্রাম থেকে মোটরসাইকেলে ঢাকায় ফিরছিলেন। চন্দ্রা ত্রিমোড়ের উড়াল সেতুর পশ্চিম পাশে আসার পর ইটভর্তি একটি ট্রাক তাকে চাপা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। স্থানীয়রা জানান, পুলিশ দ্রুত ঘটনাস্থলে গিয়ে ট্রাকটি আটক করলেও অজ্ঞাত কারণে চালক ও হেলপারকে আটক করেনি।

রংপুর :রংপুরের তারাগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এলাকায় ঢাকা-রংপুর মহাসড়কের পাশ থেকে বাদশা আদিল (৫৫) নামে একজনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। তারাগঞ্জ থানার ওসি জিন্নাত হোসেন জানান, বুধবার সকাল ৭টার দিকে রংপুর-ঢাকা মহাসড়কের পাশে বাদশাকে রক্তাক্ত ও মৃত অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখে এলাকাবাসী পুলিশে খবর দেয়। পুলিশ লাশ উদ্ধার করে। ধারণা করা হচ্ছে, কোনো গাড়ির ধাক্কায় তিনি নিহত হয়েছেন।

দিনাজপুর :দিনাজপুরের বিরলে ট্রাকচাপায় আনোয়ার হোসেন (৫০) নামে এক মোটরসাইকেল চালক নিহত হয়েছেন। আনোয়ার উপজেলার শহরগ্রাম ইউপির মুটুকপুর গ্রামের তমিজ উদ্দীনের ছেলে। বিরল থানার ওসি এটিএম গোলাম রসুল জানান, বিরল উপজেলা থেকে মোটরসাইকেলে বোচাগঞ্জ যাচ্ছিলেন আনোয়ার। পথে তেঁতুলতলা এলাকায় একটি ট্রাক পেছন থেকে তার মোটরসাইকেলকে চাপা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়।

খোকসা (কুষ্টিয়া) :কুষ্টিয়ার খোকসায় নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে একটি বাস খাদে পড়ে এক যাত্রী নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আরও ২০ যাত্রী আহত হয়েছেন। নিহতের নাম মোকাদ্দেস আলী (৪০), তিনি উপজেলার কমলাপুর গ্রামের মকছেদ আলীর ছেলে। তিনি বাংলাদেশ নৌবাহিনীর সিভিল এভিয়েশনে রাঁধুনির চাকরি করতেন। বাসের আহত যাত্রী মিজানুর ও আহম্মদ জানান, খারাপ রাস্তায়ও বাসটি দ্রুত গতিতে চালাচ্ছিলেন চালক। যাত্রীরা অনেকবার তাকে সাবধান করার পরও তিনি কথা শোনেননি। খোকসার শিমুলিয়া গ্রামের কাছে বাসটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে খাদে পড়ে যায়।

উল্লাপাড়া (সিরাজগঞ্জ) :উল্লাপাড়ায় বৈদ্যুতিক খুঁটির সঙ্গে সিএনজিচালিত অটোরিকশার ধাক্কায় চালকসহ ছয়জন আহত হয়েছেন। বুধবার দুপুরে উল্লাপাড়া-কৃষকগঞ্জ বাজার জিসি সড়কের ঘোষগাঁতী এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। আহতদের মধ্যে দু'জনকে গুরুতর অবস্থায় সিরাজগঞ্জ সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।