শান্তি সূচকে পিছিয়েছে বাংলাদেশ

প্রকাশ: ১৩ জুন ২০১৯      

সমকাল ডেস্ক

বিশ্ব শান্তি সূচকে (জিপিআই) ৯ ধাপ অবনমন ঘটেছে বাংলাদেশের। ১৬৩ দেশের মধ্যে এবার বাংলাদেশের অবস্থান ১০১তম। বুধবার এ প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে অস্ট্রেলিয়ার গবেষণা সংস্থা ইনস্টিটিউট ফর ইকোনমিকস অ্যান্ড পিস।

প্রতিবেদনে বলা হয়, জলবায়ু পরিবর্তনের ফলে বাংলাদেশ, ভারত ও চীন সূচকের নিচের অর্ধেকে অবস্থান করছে। এ তিনটি দেশের ৩৯ কোটি ৩০ লাখ মানুষ জলবায়ু পরিবর্তনে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকায় বাস করছে। সহিংসতার কারণে গত বছর বাংলাদেশের দুই হাজার ২২৯ কোটি ডলারের ক্ষতি হয়েছে। এটা দেশের জিডিপির ৩ শতাংশ।

২৩টি সূচকের ভিত্তিতে বিশ্ব শান্তির এই তালিকা তৈরি করা হয়। এতে সামাজিক নিরাপত্তা, অভ্যন্তরীণ ও আন্তর্জাতিক সংঘাত এবং সামরিকীকরণের মাত্রার মতো বিষয়গুলো বিবেচনায় নেওয়া হয়। প্রতিবেদনে বলা হয়, ২০১৯ সালের এই সূচকে বিশ্বে শান্তিপূর্ণ অবস্থার উন্নতি হয়েছে। ৮৬টি দেশ এ সময় উন্নতি করেছে, অবনতি হয়েছে ৭৬টির। ভুটান সবচেয়ে বেশি উন্নতি করা ২০টি দেশের তালিকায় জায়গা করে নিয়েছে।

মজার ব্যাপার হলো, চীন (১১০), থাইল্যান্ড (১১৬), যুক্তরাষ্ট্র (১২৮), সৌদি আরব (১২৯), ভারত (১৪১) ও পাকিস্তানের (১৫৩) চেয়ে বাংলাদেশ শান্তিপূর্ণ দেশ। প্রতিবেদনে বলা হয়, ঢাকার বস্তির ৮১ শতাংশ বাসিন্দা বলেছেন, জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে তারা এতে আশ্রয় নিতে বাধ্য হয়েছেন। সমুদ্রে পানির উচ্চতা বাড়লে বাংলাদেশের এক কোটি ৮০ লাখ মানুষ ক্ষতিগ্রস্ত হবে। এতে এ দেশের উপকূলীয় এলাকার বাসিন্দারা অভিবাসনের দিকে ঝুঁকবে।

এবারের তালিকায় ভারত চার ধাপ ও পাকিস্তান দুই ধাপ পিছিয়েছে। সিরিয়াকে পেছনে ফেলে তালিকায় সবচেয়ে অশান্তির দেশ হিসেবে উঠে এসেছে আফগানিস্তানের নাম। এরপর রয়েছে সিরিয়া, দক্ষিণ সুদান, ইয়েমেন ও ইরাক। এবারও সবচেয়ে শান্তির দেশ আইসল্যান্ড। এর পরের অবস্থানে রয়েছে নিউজিল্যান্ড, অস্ট্রিয়া, পর্তুগাল ও ডেনমার্ক।