অধ্যক্ষ মহসীন আলী দেওয়ানের শাহাদাতবার্ষিকী আজ সোমবার। ১৯৭১ সালের ৩ জুন পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী রাজাকারদের সহায়তায় তাকে তার বগুড়ার বাসভবন থেকে তুলে নিয়ে গিয়ে হত্যা করে। সেই সময় তিনি শেরপুর ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ ও সাপ্তাহিক উত্তরবঙ্গ বুলেটিনের সম্পাদক ছিলেন। ঢাকার দৈনিক ইত্তেহাদ ও ইনসাফে সাংবাদিকতা জীবন শুরু করেন মহসীন আলী দেওয়ান। পরে তিনি প্রথমে নওগাঁ ডিগ্রি কলেজে শিক্ষকতা করেন। এরপর তিনি বগুড়া আজিজুল হক কলেজে বাংলা বিভাগের প্রধান হয়েছিলেন। শহীদ বুদ্ধিজীবী মহসীন আলী দেওয়ান বগুড়া থেকে সাহিত্য মাসিক অতএব ও বাংলাদেশের প্রথম সান্ধ্য দৈনিক জনমত প্রকাশনা শুরু করেন। তিনি বগুড়া প্রেস ক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ছিলেন। তার উদ্যোগে বগুড়া আইন কলেজ, শাহ সুলতান কলেজ ও জয়পুরহাট কলেজ প্রতিষ্ঠিত হয়। তার আত্মত্যাগের স্বীকৃতিস্বরূপ বাংলাদেশ ডাক বিভাগ একটি ডাকটিকিট প্রকাশ করে। বর্তমান সরকার শহীদের স্মৃতি রক্ষার্থে বগুড়া শহরের একটি রাজপথ তার নামে করেছে। দেশের অন্যতম বৃহত্তম উন্নয়ন সংস্থা টিএমএসএস সাংবাদিকতায় শহীদ মহসীন আলী দেওয়ান পুরস্কার প্রবর্তন করেছে।

মন্তব্য করুন