বগুড়া-৬ উপনির্বাচন বিএনপির একক প্রার্থী সিরাজসহ মাঠে সাতজন

প্রকাশ: ০৪ জুন ২০১৯      

বগুড়া ব্যুরো

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর শপথ না নেওয়ায় শূন্য হয়ে যাওয়া বগুড়া-৬ সদর আসনের উপনির্বাচনে বিএনপির একক প্রার্থী হিসেবেই থাকছেন গোলাম মোহাম্মদ সিরাজ। গতকাল সোমবার মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষ দিন পার হওয়ার পরও বিএনপির অপর প্রার্থী রেজাউল করিম বাদশা মনোনয়ন প্রত্যাহার করেননি। তবে দল থেকে সিরাজকে প্রতীক বরাদ্দের চিঠি দেওয়া হলেই বাদশার মনোনয়ন বাতিল হয়ে যাবে।

এই উপনির্বাচনে ১১ জন দাখিল করলেও ২৭ মে মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাইয়ে তিনজনের মনোনয়নপত্র বাতিল হয়ে যায়। তারা হলেন, বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ও পৌর মেয়র অ্যাডভোকেট এ কে এম মাহবুবর রহমান, স্বতন্ত্র প্রার্থী জাফর আলী ও আবুল হোসান। মাহবুবর রহমান মেয়রের দায়িত্ব থেকে পদত্যাগ না করায় এবং প্রস্তাবক ও সমর্থকের স্বাক্ষর জালের অভিযোগে অপর দু'জনের মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়।

এখন মাঠে থাকা আট প্রার্থী হলেন- আওয়ামী লীগের টি জামান নিকেতা, জেলা বিএনপির আহ্বায়ক ও সাবেক সাংসদ গোলাম মোহাম্মদ সিরাজ, জেলা বিএনপির আহ্বায়ক কমিটির সদস্য রেজাউল করিম বাদশা, জাতীয় পার্টির সাবেক সাংসদ নুরুল ইসলাম ওমর, নতুন নিবন্ধন পাওয়া দল বাংলাদেশ কংগ্রেসের জেলা সভাপতি ড. মুনসুর রহমান, মুসলিম লীগের মুফতি মোহাম্মদ রফিকুল ইসলাম, স্বতন্ত্র প্রার্থী সাবেক মোটর শ্রমিক নেতা সৈয়দ কবির আহম্মেদ মিঠু ও ব্যবসায়ী মিনহাজ মণ্ডল।

তবে দলীয় সূত্র জানিয়েছে, বিএনপি থেকে প্রাথমিকভাবে দু'জনকে মনোনয়নপত্র জমা দিতে বলা হলেও মূল প্রার্থী হিসেবে থাকবেন সিরাজ। তাকেই দল থেকে প্রতীক বরাদ্দের চিঠি দেওয়া হবে। আর এমনটি হলে বাদশার মনোনয়নপত্র বাতিল হয়ে যাবে। তখন নির্বাচনে প্রার্থী হিসেবে থাকবেন সাতজন। বিষয়টি নিশ্চিত করে মনোনয়ন জমা দেওয়া জেলা বিএনপির আহ্বায়ক কমিটির সদস্য রেজাউল করিম বাদশা বলেন, 'আমি গোলাম মোহাম্মদ সিরাজের ডামি প্রার্থী হিসেবে মনোনয়নপত্র দাখিল করেছিলাম। দলের সিদ্ধান্তে বিএনপির একক প্রার্থী গোলাম মোহাম্মদ সিরাজ।'

জেলা সিনিয়র নির্বাচন কর্মকর্তা মাহবুব আলম শাহ্‌ জানান, সোমবার মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষ দিনে কেউ মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করেননি। আজ ৪ জুন মঙ্গলবার প্রতীক বরাদ্দ ও ২৪ জুন এ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।