নুসরাতের কবর জিয়ারত করলেন ব্যারিস্টার সুমন

প্রকাশ: ০৯ জুন ২০১৯      

সোনাগাজী (ফেনী) প্রতিনিধি

আগুনে পুড়িয়ে হত্যার শিকার ফেনীর মাদ্রাসাছাত্রী নুসরাত জাহান রাফির কবর জিয়ারত করেছেন ব্যারিস্টার সৈয়দ সায়েদুল হক সুমন। গতকাল শনিবার বিকেলে সোনাগাজী পৌরসভার আল হেলাল একাডেমি সংলগ্ন সামাজিক কবরস্থানে শায়িত নুসরাতের কবরের সামনে দাঁড়িয়ে তার আত্মার মাগফিরাত কামনা করে দোয়া করেন ব্যারিস্টার সুমন। তিনি নুসরাতের জবানবন্দির ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়ানোর অভিযোগে ওসি মোয়াজ্জেমের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা করেন। সেই মামলায় ঢাকার সাইবার নিরাপত্তা ট্রাইব্যুনাল ওসি মোয়াজ্জেমের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ারা জারি করেন।

নুসরাতের কবরের সামনে দাঁড়িয়ে ফেসবুকের লাইভে ব্যারিস্টার সুমন বলেন, এ জায়গায় নুসরাত ঘুমিয়ে আছে। তার কবরে লাগানো গাছগুলো অনেক বড় হয়ে গেছে। আমি বাংলাদেশের মানুষের উদ্দেশে বলতে চাই, যারা ভেবেছিলেন নুসরাতের নিউজটা মাটিচাপা পড়ে গেছে, তা মনে করার কোনো কারণ নেই। নুসরাত হত্যাকাে র সঙ্গে জড়িত সবাই এখন জেলে, শুধু সোনাগাজী মডেল থানার সাবেক ওসি মোয়াজ্জেম হোসেন ছাড়া।

তিনি আরও বলেন, যে মেয়েটি হাতে মেহেদি দিয়ে মা-বাবা ও ভাইদের সঙ্গে ঈদ করার কথা ছিল সে আজ কবরে শুয়ে আছে। আমি আজকে  এখানে এসেছি নুসরাতের কাছে ক্ষমা চাইতে। আমরা নুসরাতকে পরিপূর্ণ নিরাপত্তা দিতে পারিনি। এটা আমাদের ব্যর্থতা। নুসরাতের মতো মানুষরা যদি আমাদের মাফ না করেন তবে এ বাংলাদেশ এগোবে না।

এ সময় নুসরাতের বাবা একেএম মুসা, বড় ভাই মাহমুদুল হাসান নোমান, ছোট ভাই রাশেদুল হাসান রায়হান ও এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তি উপস্থিত ছিলেন। এর আগে ব্যারিস্টার সায়েদুল হক সুমন নিহত নুসরাতের বাড়িতে গিয়ে শোকার্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি সমবেদনা জানান।