রিজেন্ট এয়ারে মাহবুবের আসন বদল, ক্ষুব্ধ ইসি

প্রকাশ: ০৯ জুলাই ২০১৯

সমকাল প্রতিবেদক

রিজেন্ট এয়ারওয়েজের একটি ফ্লাইটে সস্ত্রীক চট্টগ্রামে যাওয়ার পথে অনাকাঙ্ক্ষিত পরিস্থিতির মুখে পড়েছিলেন নির্বাচন কমিশনার মাহবুব তালুকদার। বিজনেস ক্লাসের টিকিট কেটেও তাকে যেতে হয়েছে ইকোনমি ক্লাসে। এ ঘটনায় নির্বাচন কমিশন ক্ষুব্ধ হয়েছে। ইতিমধ্যে ইসির আইন শাখাকে এ বিষয়ে রিজেন্ট এয়ারের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

মাহবুব তালুকদার এ বিষয়ে কোনো মন্তব্য করতে রাজি না হলেও তার সহকর্মী রফিকুল ইসলাম বলেছেন, এই ঘটনায় কমিশনের মর্যাদা ক্ষুণ্ণ হয়েছে। রিজেন্ট এয়ারের প্রধান পরিচালন কর্মকর্তা আশীষ রায় চৌধুরী সমকালকে জানিয়েছেন, বিষয়টিকে তারা অত্যন্ত গুরুত্বসহকারে নিয়েছেন। এই ঘটনায় রিজেন্ট এয়ার কর্তৃপক্ষ অত্যন্ত দুঃখিত। এ নিয়ে তদন্ত শুরু হয়েছে। দায়ীদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়া হবে। তাদের চিফ কমার্শিয়াল অফিসার হানিফ জাকারিয়া নির্বাচন কমিশনে যাবেন মাহবুব তালুকদারের কাছে ক্ষমা চাইতে।

মাহবুব তালুকদার এই ঘটনার বর্ণনা দিয়ে প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নূরুল হুদাকে ইউও (আনঅফিসিয়াল) নোট দিয়েছেন। তাতে তিনি বলেন, গত ২৭ জুন রিজেন্ট এয়ারওয়েজে করে সরকারি ভ্রমণে ঢাকা থেকে চট্টগ্রাম যান তিনি। ফ্লাইটির নম্বর ছিল আরএক্স ০৭৮৬। বিজনেস ক্লাসে তাদের আসন নম্বর ছিল ১ এ ও ২ডি। দু'জনেরই বোর্ডিং পাসে ভিআইপি সিল মারা ছিল। বিজনেস ক্লাসের টিকিট থাকা সত্ত্বেও ইকোনমি ক্লাসে কেন বসানো হচ্ছে, তা নিয়ে এয়ার হোস্টেজ কোনো উত্তর দিতে পারেননি। চিফ পার্সার বলেছেন, গ্রাউন্ড স্টাফরা ভুল করে তাদের ইকোনমি ক্লাসে বসিয়েছে।