'আল মাহমুদের কবিতায় রয়েছে দেশপ্রেম ও সমাজবোধ'

প্রকাশ: ১২ জুলাই ২০১৯      

সমকাল প্রতিবেদক

বক্তব্য, স্মৃতিচারণ, কবিতা আবৃত্তি ও আলোচনার মধ্য দিয়ে উদযাপিত হলো আধুনিক বাংলা ভাষার অন্যতম প্রধান কবি আল মাহমুদের ৮৩তম জন্মবার্ষিকী। এ উপলক্ষে বৃহস্পতিবার বিকেলে রাজধানীর কাঁটাবনের কবিতা ক্যাফেতে আয়োজন করা হয় 'আল মাহমুদ উৎসব'।

অনুষ্ঠানে আলোচনায় কবি আল মাহমুদের বহুমাত্রিকতার বিষয় তুলে ধরে বক্তারা বলেন, তার গদ্য কবিতায় রয়েছে প্রবল দেশপ্রেম ও সমাজবোধ। তারা বলেন, ভাষাসংগ্রামী ও মুক্তিযোদ্ধা কবি আল মাহমুদ একজন দেশপ্রেমিক ছিলেন বলেই লেখনীতে জাতির স্বাধীনতা, শেকড়, ধর্ম, বিজয় ও সংস্কৃতিকে নিপুণ সাজে তুলে ধরেছেন। এসবের কারণে আল মাহমুদকে রাষ্ট্রীয়ভাবে মরণোত্তর স্বাধীনতা পুরস্কার প্রদানের দাবি জানান তারা।

সাহিত্য সংগঠন 'কবি এবং কবিতা'র আয়োজনে এ অনুষ্ঠানে কবি মুহম্মদ নূরুল হুদা বলেন, কবি আল মাহমুদের দিকে বাংলা ভাষা ও সাহিত্য প্রত্যাবর্তন করছে এবং করবে।

মুখ্য আলোচক ছিলেন কবি জাহিদুল হক। স্বাগত বক্তব্য দেন আল মাহমুদ ফাউন্ডেশনের সাধারণ সম্পাদক আবিদ আজম। কবি শাহীন রেজার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় সঞ্চালক ছিলেন কবি জাকির আবু জাফর। বক্তব্য দেন কবি রেজাউদ্দিন স্টালিন, কথাশিল্পী নাহিদা আশরাফী, ড. ফজলুল হক তুহিন, কবি বকুল আশরাফ প্রমুখ।