তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, বাঙালির ইতিহাস ও আওয়ামী লীগের মধ্যে কোনো পার্থক্য নেই। আওয়ামী লীগের ইতিহাস পড়লেই বাঙালির ইতিহাস জানা হয়ে যায়। পাকিস্তান সৃষ্টির পর ধনিক শ্রেণির হাতে চলে যাওয়া রাজনীতি সাধারণ মানুষের হাতে ফিরিয়ে আনতে, পলাশীর যুদ্ধে সিরাজ-উদ-দৌলার পরাজয়ের মাধ্যমে বাংলার হারানো গৌরব ফিরিয়ে আনতে আওয়ামী লীগের জন্ম হয়।

গতকাল সোমবার বিকেলে কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামের নোয়াবাজারে উপজেলা আওয়ামী লীগের উদ্যোগে আয়োজিত জনসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ৭০তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালনে মাসব্যাপী কর্মসূচির অংশ হিসেবে এ জনসভার আয়োজন করা হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন চৌদ্দগ্রাম উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আবদুস সোবহান ভূঁইয়া হাসান।

অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তা কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাবেক রেলমন্ত্রী মুজিবুল হক এমপি বলেন, আজ থেকে ৭০ বছর আগে ঢাকার রোজ গার্ডেনে বঙ্গবন্ধুসহ নেতৃবৃন্দ আওয়ামী লীগ প্রতিষ্ঠা করেন। জনগণের  মন থেকে এ দলের সৃষ্টি। আর বিএনপি ও জাতীয় পার্টির সৃষ্টি ক্যান্টনমেন্টে। আওয়ামী লীগের বড় অর্জন বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে আমরা প্রিয় মাতৃভূমিকে স্বাধীন করেছি।

অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য দেন কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক সাজ্জাদ হোসেন, চৌদ্দগ্রাম উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও পৌর মেয়র মিজানুর রহমান, জেলা আওয়ামী লীগ নেতা আলী হোসেন, সামছুল আলম মজুমদার, চৌদ্দগ্রাম উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান এবিএমএ বাহার, উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতা আবদুল বারিক, আক্তার হোসেন পাটোয়ারী, জিএম মীর হোসেন, আফতাবুল ইসলাম, ইউপি চেয়ারম্যান জাহিদ হোসেন টিপু, উপজেলা যুবলীগের আহ্বায়ক শ্রীপুর ইউপি চেয়ারম্যান শাহজালাল মজুমদার, জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক লোকমান হোসেন রুবেল, আহ্বায়ক তৌফিকুল ইসলাম সবুজ প্রমুখ।



মন্তব্য করুন