বিএনপি চেয়ারপারসন কারাবন্দি খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে গ্যাটকো দুর্নীতি মামলার অভিযোগ (চার্জ) গঠনের ওপর শুনানি পিছিয়ে আগামী ২২ আগস্ট নতুন দিন ধার্য করা হয়েছে। আসামিপক্ষের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে গতকাল সোমবার কেরানীগঞ্জ কেন্দ্রীয় কারাগারের ২ নম্বর ভবনে স্থাপিত অস্থায়ী আদালতের বিচারক আবু সৈয়দ দিলজার হোসেন এ দিন ধার্য করেন।

গতকাল মামলাটির চার্জ শুনানির জন্য ধার্য ছিল। কিন্তু মামলার প্রধান আসামি খালেদা জিয়া বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে চিকিৎসাধীন থাকায় কারা কর্তৃপক্ষ তাকে আদালতে হাজির করতে পারেনি। আদালতে খালেদা জিয়ার পক্ষে তার আইনজীবী মাসুদ আহমেদ তালুকদার বলেন, কাস্টডিতে থাকা আসামি খালেদা জিয়াকে আদালতে আনা হয়নি। আসামির অনুপস্থিতিতে চার্জ শুনানি আইনসম্মত নয়। শুনানি শেষে আদালত আগামী ২২ আগস্ট পরবর্তী দিন ধার্য করেন। এ সময় দুদকের আইনজীবী মোশাররফ হোসেন কাজল উপস্থিত ছিলেন।

২০০৭ সালের ২ সেপ্টেম্বর দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) উপপরিচালক গোলাম শাহরিয়ার চৌধুরী বাদী হয়ে সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়াসহ ১৩ জনের বিরুদ্ধে তেজগাঁও থানায় মামলাটি করেন। মামলায় বলা হয়, আসামিরা পরস্পর যোগসাজশে দরপত্রের শর্ত ভঙ্গ এবং ক্ষমতার অপব্যবহার করে চট্টগ্রাম বন্দরের হ্যান্ডলিংয়ের কাজ অনভিজ্ঞ ও অদক্ষ

ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান গ্যাটকোকে দেওয়া হয়েছে। এর ফলে রাষ্ট্রের ১৪ কোটি ৫৬ লাখ ৩৭ হাজার ৬১৬ টাকার আর্থিক ক্ষতি হয়েছে। এ ছাড়া গ্যাটকোকে ঠিকাদারি কাজ পাইয়ে দেওয়ার বিনিময়ে অবৈধভাবে আরাফাত রহমান কোকো ও ইসমাইল হোসেন সায়মন দুই কোটি ১৯ লাখ ৯৯ হাজার ৭৩৬ টাকার আর্থিক সুবিধা নিয়েছেন। ২০০৮ সালের ১৩ মে তদন্ত শেষে ২৪ আসামির বিরুদ্ধে দুদকের উপপরিচালক জহিরুল হুদা চার্জশিট দাখিল করেন। মামলার ২৪ আসামির মধ্যে ছয়জন বিভিন্ন সময়ে মারা গেছেন।

মন্তব্য করুন