ঢাকার পার্শ্ববর্তী নদীতীরের অবৈধ স্থ্থাপনা উচ্ছেদে চতুর্থ পর্বের অভিযানের তৃতীয় পর্যায়ের কার্যক্রম শুরু হয়েছে। প্রথম দিনে সোমবার ঢাকার শ্যামপুর এলাকায় বুড়িগঙ্গা নদীর তীর থেকে আরও ৪২টি অবৈধ স্থ্থাপনা উচ্ছেদ করেছে বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআইডব্লিউটিএ)।

এদিন সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত শ্যামপুর লঞ্চঘাটের পশ্চিম পাশ থেকে মুন্সীখোলা পর্যন্ত বুড়িগঙ্গা নদীর উত্তর পাড়ে উচ্ছেদ অভিযান চালানো হয়। এটি ছিল চলমান উচ্ছেদ অভিযানের ৪৩তম দিন। এদিন বিআইডব্লিউটিএর নির্বাহী ম্যাজিস্ট্র্রেট মোস্তাফিজুর রহমানের নেতৃত্বে অভিযানকালে আটটি আধাপাকা ভবন, ১২টি সীমানা প্রাচীর (৪৮০ রানিং ফুট) ও ২৩টি টিনের টংঘরসহ মোট ৪২টি অবৈধ স্থ্থাপনা উচ্ছেদ করা হয়। এ সময় পাঁচ একর তীরভূমি অবমুক্ত করা হয়। এ ছাড়া উচ্ছেদকৃত অবৈধ স্থাপনার মালপত্র নিলামে ৬২ লাখ ৫৮ হাজার টাকায় বিক্রি এবং উচ্ছেদ কাজে বাধা দেওয়ায় দু'জনকে ৩০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

তৃতীয় পর্যায়ের দ্বিতীয় দিনের অভিযানে আজ মঙ্গলবার সকাল ৯টা থেকে বুড়িগঙ্গা প্রথম সেতুর (পোস্তগোলা ব্রিজ) দক্ষিণ প্রান্তের নিচ থেকে উচ্ছেদ কার্যক্রম শুরু হবে। উচ্ছেদ অভিযানকালে এর তত্ত্বাবধানে থাকা বিআইডব্লিউটিএর ঢাকা নদীবন্দরের যুগ্ম পরিচালক এ কে এম আরিফ উদ্দিন এবং সংস্থার ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

মন্তব্য করুন