ঢাবির উপাচার্য প্যানেল নির্বাচন ৩১ জুলাই সমাবর্তন ৯ ডিসেম্বর

প্রকাশ: ১৯ জুলাই ২০১৯

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) উপাচার্য প্যানেল নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে ৩১ জুলাই। ওই দিন বিকেল ৩টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের নবাব নওয়াব আলী চৌধুরী সিনেট ভবনে এ নির্বাচন শুরু হবে। গতকাল বৃহস্পতিবার বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য (প্রশাসন) ও সিনেট সদস্য অধ্যাপক মুহাম্মদ সামাদ এ তথ্য জানান। এদিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের ৫২তম সমাবর্তন অনুষ্ঠিত হবে ৯ ডিসেম্বর।

১৯৭৩ সালের অধ্যাদেশ অনুযায়ী বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনেটের কাজ উপাচার্য নির্বাচন ও বার্ষিক বাজেট পাস করা। সিনেট তিন সদস্যের উপাচার্যের প্যানেল নির্বাচন করে রাষ্ট্রপতির (বিশ্ববিদ্যালয়ের আচার্য) কাছে পাঠাবে। রাষ্ট্রপতি তাদের মধ্য থেকে একজনকে উপাচার্য নিয়োগ দেবেন।

কয়েক সিন্ডিকেট সদস্য জানান, গত ১৬ জুলাই বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক মো. আখতারুজ্জামান ঢাবি সিনেটের শিক্ষক ও রেজিস্টার্ড গ্র্যাজুয়েট প্রতিনিধিদের নিয়ে চা-চক্রের আয়োজন করেন। সেখানে উপাচার্য প্যানেল নির্বাচনের জন্য বিশেষ অধিবেশনের তারিখ নির্ধারণ বিষয়ে সবার

মতামত নেন। এ মতামতের ভিত্তিতে ৩১ জুলাই উপাচার্য প্যানেল নির্বাচনের অধিবেশন ডাকার সিদ্ধান্ত নেন অধ্যাপক আখতারুজ্জামান।

২০১৭ সালের ৪ সেপ্টেম্বর ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃৃতি বিভাগের অধ্যাপক আখতারুজ্জামানকে উপাচার্য পদে সাময়িক নিয়োগ দেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ। প্রায় দুই বছর সাময়িক ভিত্তিতে দায়িত্ব পালনের পর উপাচার্য প্যানেল নির্বাচনের আয়োজন করতে যাচ্ছেন অধ্যাপক আখতারুজ্জামান। গত ২৬ জুন বিশ্ববিদ্যালয়ের বার্ষিক সিনেট অধিবেশন অনুষ্ঠিত হয়। ওই অধিবেশনের এজেন্ডায় উপাচার্য প্যানেল নির্বাচনের বিষয়টি ছিল না।

এর আগে ২০১৭ সালের ২৯ জুলাই সিনেটের বিশেষ অধিবেশনের মাধ্যমে উপাচার্য প্যানেল নির্বাচন করেছিলেন তৎকালীন উপাচার্য আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক। তবে তখন সিনেট পূর্ণাঙ্গ ছিল না। এক রিটের পরিপ্রেক্ষিতে ওই বছর ১০ অক্টোবর সিনেটের বিশেষ সভা ও তিন সদস্যের উপাচার্য প্যানেলকে অবৈধ ঘোষণা করেন উচ্চ আদালত। পাশাপাশি ছয় মাসের মধ্যে যথাযথভাবে সিনেট গঠন করে উপাচার্য প্যানেল নির্বাচন করতে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে নির্দেশনাও দেওয়া হয়।

৫২তম সমাবর্তন ৯ ডিসেম্বর :বিশ্ববিদ্যালয়ের ৫২তম সমাবর্তন ৯ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত হবে। সম্প্রতি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের সভাপতিত্বে সিন্ডিকেট সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। গতকাল বিশ্ববিদ্যালয়ের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, সমাবর্তন উপলক্ষে সিন্ডিকেট সভায় জাপানের টোকিও বিশ্ববিদ্যালয় ইনস্টিটিউট ফর কসমিক রে রিসার্চের পরিচালক এবং নোবেল বিজয়ী পদার্থ বিজ্ঞানী অধ্যাপক তাকাকি কাজিতাকে সমাবর্তন বক্তা হিসেবে আমন্ত্রণ জানানোর প্রস্তাব করা হয়েছে। এ ছাড়া সমাবর্তন অনুষ্ঠানে তাকে সম্মানসূচক 'ডক্টর অব লজ' ডিগ্রি দেওয়ারও সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।