খালেদা জিয়ার দুই মামলার শুনানি পিছিয়েছে

প্রকাশ: ১৯ জুলাই ২০১৯

সমকাল প্রতিবেদক

বড়পুকুরিয়া কয়লা খনি দুর্নীতি মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন কারাবন্দি খালেদা জিয়াসহ ১১ আসামির বিরুদ্ধে চার্জ গঠনের ওপর শুনানি ৫ সেপ্টেম্বর ফের দিন ধার্য করেছেন আদালত। কেরানীগঞ্জ কারাগারে নবনির্মিত ২ নম্বর ভবনে স্থাপিত অস্থায়ী ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-২-এর বিচারক এ এইচ এম রুহুল ইমরান গতকাল বৃহস্পতিবার আসামি পক্ষের আবেদন মঞ্জুর করে এ দিন নির্ধারণ করেন।

গতকাল এ মামলায় চার্জ শুনানির দিন ধার্য ছিল। তবে খালেদা জিয়া হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থাকায় তাকে আদালতে হাজির করেনি কারা কর্তৃপক্ষ। এজন্য তার পক্ষে মাসুদ আহমেদ তালুকদার শুনানি পেছানোর আবেদন করলে বিচারক তা মঞ্জুর করে পরবর্তী শুনানির জন্য এ দিন ধার্য করেন।

এ মামলায় আসামি ছিলেন ১৩ জন। জামায়াত নেতা মতিউর রহমান নিজামী ও আলী আহসান মুজাহিদের ফাঁসি কার্যকর হওয়ায় বর্তমানে আসামি ১১ জন। সম্প্রতি আরেক

আসামি সাবেক মন্ত্রী ব্যারিস্টার আমিনুল হক মারা গেছেন।

২০০৮ সালের ২৬ ফেব্রুয়ারি খালেদা জিয়া ও তার মন্ত্রিসভার সদস্যসহ ১৬ জনের বিরুদ্ধে বড়পুকুরিয়া কয়লা খনি দুর্নীতি মামলা দায়ের করে দুদক। শাহবাগ থানায় মামলাটি করেন দুদকের তৎকালীন সহকারী পরিচালক সামছুল আলম।

বোমা হামলার মামলা পিছিয়েছে :সাবেক নৌপরিবহনমন্ত্রী শাজাহান খানের মিছিলে বোমা হামলার মামলায় খালেদা জিয়াসহ ১৪ জনের বিরুদ্ধে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল ফের পিছিয়েছে। তদন্ত কর্মকর্তার আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ২৬ আগস্ট এ দিন ধার্য করেন ঢাকা মহানগর হাকিম দেবদাস চন্দ্র অধিকারী। ২০১৫ সালের ১৬ ফেব্রুয়ারি মুক্তিযোদ্ধা পরিষদের সদস্যরা খালেদা জিয়ার কার্যালয় ঘেরাও কর্মসূচি পালনের জন্য গুলশানে সমবেত হন। সেখানে সমাবেশ শেষে হাজার হাজার জনতা শাজাহান খানের নেতৃত্বে বিএনপি চেয়ারপারসনের কার্যালয় ঘেরাও করার উদ্দেশে রওনা হলে বোমা নিক্ষেপ করা হয়।