রাজশাহীতে স্ত্রীকে গলা কেটে হত্যায় স্বামীর মৃত্যুদণ্ড

প্রকাশ: ১৯ জুলাই ২০১৯

রাজশাহী ব্যুরো

রাজশাহীতে স্ত্রীকে প্রকাশ্যে গলা কেটে হত্যা করায় আয়নাল হক (৩০) নামের এক ব্যক্তির মৃত্যুদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে তাকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে রাজশাহী মহানগর দায়রা জজ আদালতের বিচারক এইচএম ইলিয়াস হোসাইন এ রায় ঘোষণা করেন।

দণ্ডপ্রাপ্ত আয়নাল হক রাজশাহীর পবা উপজেলার বায়া ভোলাবাড়ি গ্রামের একরাম আলীর ছেলে। পারিবারিক কলহের জেরে ২০১৬ সালের ১৭ এপ্রিল সকালে বাড়ির সামনে আয়নাল হক প্রকাশ্যে তার স্ত্রী সাফিয়া খাতুন বুলবুলিকে (২৫) গলা কেটে হত্যা করে। ঘটনার পর

সেদিনই পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে।

এ ঘটনায় রাজশাহী মহানগরীর শাহমখদুম থানায় আয়নালের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা দায়ের করেন বুলবুলির বাবা পবা উপজেলার মনদহাটি গ্রামের জয়নাল আলী। মামলায় ২০ জনকে সাক্ষী করা হয়েছিল। আদালত তাদের সাক্ষ্য গ্রহণ করেছেন। এরপর গতকাল রায় ঘোষণা করা হয়।

আদালতে রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী (ভারপ্রাপ্ত) শাহীন আহমেদ জানান, আসামি আয়নাল আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছিলেন। তা ছাড়া ঘটনাটি ঘটেছিল প্রকাশ্যে। সাক্ষীরা সাক্ষ্য দিয়েছেন। এর ভিত্তিতে আদালত তাকে মৃত্যুদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন। রায় ঘোষণার সময় আসামি আদালতের কাঠগড়ায় উপস্থিত ছিলেন। পরে তাকে রাজশাহী

কেন্দ্রীয় কারাগারে পাঠানো হয়।

আয়নালের মা শাহেদা বেগম বলেন, তার ছেলে মানসিক ভারসাম্যহীন। সে শ্রমিকের কাজ করত। মানসিক ভারসাম্যহীনতার কারণে সে নিয়মিত কাজও করতে পারত না। সুস্থ মস্তিস্কে সে এ হত্যাকাণ্ড ঘটায়নি। ছেলের সাজা কমানোর জন্য তিনি উচ্চ আদালতে আপিল করবেন।