প্রকল্প ভালোভাবে বাস্তবায়ন করলে পুরস্কার অর্থমন্ত্রী

প্রকাশ: ২৬ জুলাই ২০১৯      

বিশেষ প্রতিনিধি

ট্রিলিয়ন ডলারের বাজেটের স্বপ্ন দেখেছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। এখন দেশের বাজেটের আকার পাঁচ লাখ ২৩ হাজার কোটি টাকা বা ৬২ বিলিয়ন ডলার। আগামী ২০৩৪ সালে বাজেটের আকার হবে এক ট্রিলিয়ন (এক হাজার বিলিয়ন) ডলার। অর্থাৎ আলোচ্য সময়ে চলতি অর্থবছরের বাজেটের আকারের চেয়ে ১৬ গুণ বাড়বে। গতকাল রাজধানীর শেরেবাংলা নগরে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে এশীয় উন্নয়ন ব্যাংক আয়োজিত (এডিবি) এক অনুষ্ঠানে এ আশাবাদ ব্যক্ত করেন অর্থমন্ত্রী। তিনি বলেন, এখন বাংলাদেশের জনগণ মিলিয়ন, বিলিয়ন ডলারের গল্প শুনছেন। আগামীতে ট্রিলিয়ন ডলারের গুল্প শুনবেন 'ইনশাআল্লাহ'।

মুস্তফা কামাল আরও বলেন, তিনি কখনও মিথ্যা বলেন না। অতীতে যা কিছু বলেছেন, সবই সত্য হয়েছে। কোনো কিছু থেকে বিচ্যুত হননি। আগামীতে ট্রিলিয়ন ডলারের বাজেট হবে, এটা তার স্বপ্ন।

দেশের অবকাঠামো উন্নয়নে এডিবির অবদানের কথা স্বীকার করে অর্থমন্ত্রী বলেন, তারা (এডিবি) আমাদের বড় সহায়তাকারী দেশ। শুরু থেকে এ পর্যন্ত আড়াই হাজার কোটি ডলার (২৫ বিলিয়ন) ডলার অর্থায়ন করেছে। পাইপলাইনে রয়েছে আরও ১০ বিলিয়ন। এডিবির অর্থায়নে যেসব প্রকল্প বাস্তবায়নাধীন, তা শেষ হলে দেশ আরও অনেক দূর এগিয়ে যাবে।

অনুষ্ঠানে মন্ত্রী জানান, ভালো কাজের স্বীকৃতি দেওয়া উচিত। তা হলে উৎসাহিত হবেন। কিন্তু আমরা সেটা করছি না। যারা প্রকল্প বাস্তবায়নে ভালো পারফরম্যান্স করবেন, তাদের এখন থেকে পুরস্কৃত করা হবে। ডেঙ্গুজ্বরের বাজে অভিজ্ঞতা বর্ণনা করে অর্থমন্ত্রী বলেন, ডেঙ্গুর ভয়াবহতা আমি বুঝি। যন্ত্রণাও বুঝি। দোয়া করি, আল্লাহ যেন কারও ডেঙ্গু না দেন।

বর্তমানে বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের অধীনে এডিবির অর্থায়নে ৫২টি উন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়িত হচ্ছে। এসব প্রকল্প যাতে দ্রুত ও দক্ষতার সঙ্গে বাস্তবায়ন হয়, সে লক্ষ্যে 'গুড প্রজেক্ট ইমপ্লিমেন্টেশন ফোরাম' অনুষ্ঠানের আয়োজন করে এডিবির ঢাকা অফিস। উল্লিখিত প্রকল্প থেকে বাছাই করে ভালো কাজের স্বীকৃতিস্বরূপ প্রথমবারের মতো ১০টি প্রকল্পকে পুরস্কৃত করা হয়। সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রকল্প পরিচালকদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন অর্থমন্ত্রী। এ সময় এডিবি ঢাকা অফিসের কান্ট্রি ডিরেক্টর মনমোহন প্রকাশ, অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগের সচিব মনোয়ার আহমেদ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। দু'দিনের এই ফোরামে ভারত, ভুটান, নেপাল, শ্রীলংকা ও ইন্দোনেশিয়ার প্রকল্প বাস্তবায়নের অভিজ্ঞতা তুলে ধরেন নিজ নিজ দেশের প্রতিনিধিরা।

এডিবির কান্ট্রি ডিরেক্টর মনমোহন প্রকাশ বাংলাদেশকে অপার সম্ভাবনার দেশ হিসেবে অভিহিত করে বলেন, কম সময়ে দেশটির অগ্রগতি চোখের পড়ার মতো। বিশ্ব অর্থনীতি কঠিন পরিস্থিতি মোকাবেলা করলেও দ্রুত এগিয়ে চলেছে বাংলাদেশ। তিনি মনে করেন, দ্রুত এবং মানসম্মত প্রকল্প বাস্তবায়িত হলে একদিকে জনগণ এর সুফল পান, অন্যদিকে প্রকল্পের খরচ কমে।