ময়মনসিংহে ভবন হেলে পড়ার খবরে আতঙ্ক তদন্তে দুটি কমিটি

প্রকাশ: ০৫ জুলাই ২০১৯

ময়মনসিংহ ব্যুরো

ময়মনসিংহ নগরীর সানকিপাড়া শেষ মোড় এলাকায় একটি বহুতল ভবন হঠাৎ হেলে পড়েছে খবরে বুধবার রাতে বাসিন্দাদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। গভীর রাত পর্যন্ত উৎসুক জনতা ঘটনাস্থলে ভিড় জমায়। পুলিশ-র‌্যাবসহ ফায়ার সার্ভিস ও সিটি করপোরেশনের কর্মীরাও ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন। ঝুঁকি এড়াতে বাসিন্দাদের ভবন ত্যাগের পরামর্শ দেন জেলা প্রশাসন ও গণপূর্ত বিভাগের কর্মকর্তারা। ভবনের মালিক ময়মনসিংহ সিটি করপোরেশনের ৪ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মাহাবুবুর রহমান দুলাল। তার দাবি, হেলে পড়ার ঘটনা সঠিক নয়। দুটি ভবনের মাঝখানে জায়গা খুব কম থাকায় এমন মনে হচ্ছে। আর নিয়ম মেনেই ভবন নির্মাণ করা হয়েছে। তিনি বলেন, ভবনে কোনো ত্রুটি নেই। তৎকালীন পৌরসভার ইঞ্জিনিয়ার ভবনের ডিজাইন ও নকশা অনুমোদন করেছেন।

ভবন হেলে পড়ার খবরে বৃহস্পতিবার সকালে বিভাগীয় কমিশনার মাহমুদ হাসান, সিটি করপোরেশনের মেয়র ইকরামুল হক টিটু, সিটি করপোরেশনের প্রধান নির্বাহী আনোয়ার হোসেন, গণপূর্ত অধিদপ্তরের প্রকৌশলীসহ প্রশাসনের কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। বিষয়টি খতিয়ে দেখতে জেলা প্রশাসন ও সিটি করপোরেশনের পক্ষ থেকে দুটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

ভবন পরিদর্শন শেষে বিভাগীয় কমিশনার মাহমুদ হাসান জানান, ভবন প্রকৃতই হেলে পড়েছে কি-না এবং নির্মাণে কোনো ত্রুটি রয়েছে কি-না খতিয়ে দেখা হবে।

ভারপ্রাপ্ত জেলা প্রশাসক একেএম গালিব খান জানান, আপাতদৃষ্টিতে ভবন দুটি হেলে পড়েছে বলে মনে হচ্ছে। বিষয়টি খতিয়ে দেখতে অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট সমর কান্তি বসাককে প্রধান করে সাত সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। আগামী সাত দিনের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

সিটি করপোরেশনের মেয়র ইকরামুল হক টিটু জানান, ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে জনমনে আতঙ্ক লক্ষ্য করা গেছে। এ বিষয়ে সিটি করপোরেশনের পক্ষ থেকে নির্বাহী প্রকৌশলী রফিকুল হককে প্রধান করে পাঁচ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। আগামী ৩ দিনের মধ্যে প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে।

গণপূর্ত অধিদপ্তরের তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী মো. কামরুজ্জামান জানান, ভবন দুটি বিল্ডিং কোড মেনে তৈরি করা হয়নি বলে ধারণা করা হচ্ছে। তদন্ত প্রতিবেদন পাওয়ার পর বিষয়টি পরিস্কার হবে।