প্রস্তর যুগে হত্যার ধরন

প্রকাশ: ০৫ জুলাই ২০১৯

সমকাল ডেস্ক

প্রায় ৩৩ হাজার বছর আগের একটি হত্যারহস্য উন্মোচন করেছেন বিজ্ঞানীরা। পুরাতন প্রস্তর যুগের মানুষের মাথার একটি খুলি বিশ্নেষণ করেছেন তারা। এতে ওই ব্যক্তির মৃত্যুর কারণ বের হয়ে এসেছে। সহিংস আক্রমণের পর মাথায় শক্ত কিছু দিয়ে জোরালো আঘাত করেই তাকে হত্যা করা হয়েছে বলে নিশ্চিত হয়েছেন গবেষকরা।

১৯৪১ সালে রোমানিয়ার সাউথ ট্রানসেলভেনিয়ায় ফসফেটের খনি খনন করার সময় একটি গুহার মধ্যে খুলিটি পাওয়া যায়। প্রস্তর যুগের পুরুষের খুলিটি নিয়ে দীর্ঘদিন গবেষণা

করা হয়েছে। খুলিটির ডানপাশে বড় ধরনের আঘাতের চিহ্ন ছিল। প্রথম থেকেই ওই আঘাতের কারণ খুঁজছিলেন গবেষকরা। তারা দেখতে চাচ্ছিলেন আঘাতটি মৃত্যুর সময় করা হয়েছে নাকি পরে হয়েছে। অনেক গবেষণার পর তারা নিশ্চিত হন যে, লোকটিকে ব্যাট বা পাথর জাতীয় কিছু দিয়ে মাথায় আঘাত করেই হত্যা করা হয়েছে। মুখোমুখি লড়াইয়ে অংশ নিয়েই তিনি মারা গেছেন।

মাথার খুলিটি ইউরোপে আবিস্কার হওয়া আধুনিক মানুষের সবচেয়ে পুরনো ফসিল। তিনি যখন জীবিত ছিলেন তখন মানুষ কেবল প্রাথমিক পর্যায়ের পাথরের জিনিস আবিস্কার ও ব্যবহার করতে শিখেছে। তার মাথার আঘাত পরীক্ষায় কাজ করে জার্মানির টুবিঙেন বিশ্ববিদ্যালয়ের একটি গবেষণা দল। তারা একই রকম কৃত্রিম খুলি নিয়ে তা বিভিন্ন উচ্চতা থেকে ফেলে দিয়ে এবং পাথর ও ব্যাট জাতীয় বস্তু দিয়ে আঘাতের মাধ্যমিক বিষয়টি পরীক্ষা করেন। এতে দেখা যায়, তাকে সামনে থেকে মাথায় পাথর বা ব্যাট জাতীয় বস্তু দিয়ে আঘাত করে হত্যা করা হয়েছে। সূত্র : ডেইলি মেইল।