শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ মর্যাদাশীল রাষ্ট্র -আমির হোসেন আমু

প্রকাশ: ০৫ জুলাই ২০১৯

বরিশাল ব্যুরো

আওয়ামী লীগের উপদেষ্টামণ্ডলীর সদস্য আমির হোসেন আমু বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শুধু জাতীয় নেতাই নন, তিনি এখন বিশ্বনেতা। রাষ্ট্র পরিচালনায় তার সাফল্য আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত। তার নেতৃত্বে বাংলাদেশ ও বাঙালি জাতি আজ মর্যাদাশীল রাষ্ট্র ও জাতিতে পরিণত হয়েছে।

গতকাল বৃহস্পতিবার আওয়ামী লীগের বরিশাল বিভাগীয় প্রতিনিধি সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে আমির হোসেন আমু এ কথা বলেন। নগরীর বরিশাল ক্লাব মিলনায়তনে এ সভায় তিনি আরও বলেন, উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখা ও রাজনৈতিক ষড়যন্ত্র প্রতিহত করতে দেশের সব বিভাগে দলের প্রতিনিধি সভা করার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।

প্রতিনিধি সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন আওয়ামী লীগের উপদেষ্টামণ্ডলীর সদস্য তোফায়েল আহমেদ, ইউসুফ হোসেন হুমায়ুন ও আব্দুল হাফিজ মল্লিক, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক, আব্দুর রহমান, আইনবিষয়ক সম্পাদক ও গণপূর্তমন্ত্রী শ. ম. রেজাউল করিম, আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক ড. শাম্মী আহমেদ, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক অ্যাডভোকেট আফজাল হোসেন, পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী জাহিদ ফারুক শামীম এবং বরিশাল সিটি করপোরেশনের মেয়র সাদিক আবদুল্লাহ। সভাপতিত্ব করেন বরিশাল জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি আবুল হাসানাত আবদুল্লাহ।

আওয়ামী লীগের বরিশাল বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম প্রতিনিধি সভা পরিচালনা করেন। এতে বরিশাল বিভাগের আওয়ামী লীগ দলীয় সব সংসদ সদস্য, জেলা ও উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যানসহ পৌর মেয়র, জেলা ও উপজেলা আওয়ামী লীগ প্রতিনিধিরা অংশ নেন। জেলার নেতাদের মধ্যে বক্তব্য দেন বরিশাল জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট তালুকদার মো. ইউনুস, পিরোজপুরের সভাপতি একেএমএ আউয়াল, ঝালকাঠির সাধারণ সম্পাদক খান সাইফুল্লাহ পনির, বরগুনার সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির ও ভোলার সাধারণ সম্পাদক

আব্দুল মোমেন টুলু।

তালুকদার মো. ইউনুস জানান, বিভাগীয় প্রতিনিধি সভায় কেন্দ্রীয় নেতারা জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে দলের সদস্য সংগ্রহ ও নবায়ন কার্যক্রম গতিশীল করার তাগিদ দিয়েছেন। আওয়ামী লীগের সুবর্ণজয়ন্তী ও মুজিববর্ষ যথাযোগ্য মর্যাদায় উদযাপনের লক্ষ্যে মাঠ নেতাদের ঐক্যবদ্ধ থেকে কর্মসূচি গ্রহণের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া যেসব জেলা-উপজেলার কমিটি মেয়াদোত্তীর্ণ হয়েছে, সেখানে দ্রুত সম্মেলন করারও নির্দেশ দেন কেন্দ্রীয় নেতারা।

খুনি নয়ন বন্ডকে নিয়ে আ'লীগের শীর্ষ নেতাদের ক্ষোভ :প্রতিনিধি সভায় বরগুনার আলোচিত রিফাত শরীফ হত্যাকাণ্ডের মূল হোতা সাব্বির আহম্মেদ নয়ন ওরফে নয়ন বন্ডকে নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন আওয়ামী লীগের শীর্ষ নেতারা।

সভায় প্রধান বক্তা আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য ও সাবেক বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদের বেশিরভাগ কথাই ছিল নয়ন বন্ডকে ঘিরে। তিনি ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, নয়ন বন্ড একদিনে তৈরি হয়নি। রাজনৈতিক আশ্রয়-প্রশ্রয় না পেলে নয়ন বন্ডরা তৈরি হতে পারে না।

বরগুনা আওয়ামী লীগের নেতাদের উদ্দেশ করে তোফায়েল আহমেদ বলেন, আপনারা কেন খেয়াল রাখেননি? তিনি আরও বলেন, প্রধানমন্ত্রী বরগুনার ঘটনাটি অবগত হয়েছেন। নয়ন বন্ডের সঙ্গে কারও রাজনৈতিক সংশ্নিষ্টতার প্রমাণ পেলে তিনি দেশে আসার পর সে ব্যাপারে কঠোর সিদ্ধান্ত নেবেন।

এ সময় আরও দুই শীর্ষ নেতা তাদের বক্তৃতায় নয়ন বন্ড প্রসঙ্গ টেনে ক্ষোভ প্রকাশ করেন।