পটুয়াখালী নিউমার্কেট মাছ বাজারে গতকাল শনিবার সকালে বড় সাইজের তিনটি ইলিশ উঠেছে। এর একটি ২ কেজি ৩০০ গ্রাম, আরেকটি ২ কেজি ২০০ গ্রাম এবং অপরটি ১ কেজি ৮০০ গ্রাম ওজনের। বড়টির দাম হাঁকা হয় ৮ হাজার ৫০০ টাকা। দ্বিতীয়টি ৭ হাজার ৭০০ এবং সবচেয়ে ছোটটির দাম চাওয়া হয় ৬ হাজার ৩০০ টাকা। তিনটি ইলিশের মোট দাম হয় ২২ হাজার ৫০০ টাকা। সে হিসাবে প্রতি কেজি মাছের দাম পড়ে সাড়ে তিন হাজার টাকা। অর্থাৎ একটি ইলিশ কিনতে হলে আট মণ চালের দাম দিয়ে কিনতে হবে। দুপুর দেড়টা পর্যন্ত ইলিশগুলো বিক্রি হয়নি বলে জানিয়েছেন বিক্রেতা হারুন অর রশিদ মৃধা।

বিশাল আকৃতির ইলিশ তিনটি দেখার জন্য উৎসুক মানুষ বাজারে ভিড় জমান। ইলিশ দেখে সবার মন ভরে ওঠে। কিন্তু মাছের দাম শুনে হতাশ হয়ে সটকে পড়েন তারা। এত দাম দিয়ে ইলিশ কিনতে কারও সাহস হয়নি। ইলিশ তিনটি এখনও অবিক্রীতই রয়ে গেছে।

নিউমার্কেট মাছ বাজারের বিক্রেতারা জানান, বিভিন্ন সময়ে নদী ও সাগরে ইলিশ শিকারের ওপর সরকারের নিষেধাজ্ঞা থাকে। এতে জেলেরা সব সময় ইলিশ শিকার করতে পারেননি। এ কারণেই নদী ও সাগরে এত বড় সাইজের ইলিশ ধরা পড়ে জেলেদের জালে।

মাছ বিক্রেতা হারুন অর রশিদ জানান, ইলিশ তিনটি শুক্রবার বিকেলে গুলিশখালী এলাকা সংলগ্ন পায়রা নদীতে জেলেদের জালে ধরা পড়ে। সেখান থেকে চড়া দামে মাছ তিনটি কিনে আনেন তিনি। পায়রা নদীর ইলিশ সুস্বাদু হওয়ার কারণে অন্যান্য নদী বা সাগরের ইলিশের চেয়ে দাম একটু বেশি হয়ে থাকে। ক্রেতারাও চড়া দামে পায়রার ইলিশ কিনে নেন।

মন্তব্য করুন