শ্রদ্ধা ভালোবাসায় অধ্যাপক মোজাফফরের চির বিদায়

প্রকাশ: ২৬ আগস্ট ২০১৯      

নিজস্ব প্রতিবেদক, কুমিল্লা

উপমহাদেশের কমিউনিস্ট আন্দোলনের অন্যতম পুরোধা, মুজিবনগর সরকারের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য ও বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টির (ন্যাপ) প্রতিষ্ঠাতা অধ্যাপক মোজাফফর আহমদকে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় গতকাল রোববার বাদ জোহর কুমিল্লার দেবিদ্বারের এলাহাবাদ গ্রামে দাফন করা হয়েছে।

এর আগে সকাল সোয়া ১০টায় কুমিল্লার টাউন হল মাঠে তার তৃতীয় জানাজা এবং জোহরের নামাজের পর এলাহাবাদ গ্রামে চতুর্থ ও শেষ জানাজা হয়। এ সময় জেলা প্রশাসক মো. আবুল ফজল মীর, পুলিশ সুপার সৈয়দ নুরুল ইসলাম ও দেবিদ্বারের উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রবীন্দ্র চাকমা উপস্থিত ছিলেন।

সকাল ১০টায় কুমিল্লা টাউন হল মাঠে অধ্যাপক মোজাফফর আহমদের কফিনে শ্রদ্ধার্ঘ্য অর্পণ করেন কুমিল্লা মহানগর আওয়ামী লীগের পক্ষে আ ক ম বাহা উদ্দিন বাহার এমপি, জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপার, জেলা পরিষদের সাবেক প্রশাসক মো. ওমর ফারুক, জেলা ন্যাপ, কমিউনিস্ট পার্টিসহ বিভিন্ন সামাজিক, রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক ব্যক্তি এবং সংগঠন। দেবিদ্বারে  জানাজা অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সভাপতি বঙ্গবীর  কাদের সিদ্দিকী, স্থানীয় সাংসদ রাজী মোহাম্মদ ফখরুল, সাবেক রাষ্ট্রদূত  মো. আবদুল হান্নান, আওয়ামী লীগ নেতা অধ্যক্ষ এম হুমায়ুন মাহমুদ, জাপা নেতা অধ্যাপক ইকবাল হোসেন রাজু, ন্যাপ নেতা জিএম কবির, আবদুল্লাহ আল কাফি রতন, সফিক শিকদার, মোশতাকুর রহমান ফুল মিয়া, চেয়ারম্যান সিরাজুল ইসলাম, আবদুল হাকিম, অধ্যাপক মোজাফফর আহমদের ছোট ভাই খোরশেদ আহমদ। জানাজার নামাজ পড়ান অধ্যক্ষ মাওলানা অলিউর রহমান।

পরে কফিনে শ্রদ্ধার্ঘ্য অর্পণ করেন রাজী মোহাম্মদ ফখরুল এমপি, সাবেক মন্ত্রী এএফএম ফখরুল ইসলাম মুন্সী ছাড়াও কুমিল্লা উত্তর জেলা আওয়ামী লীগ, দেবিদ্বার উপজেলা আওয়ামী লীগ, ন্যাপ, সিপিবি, দেবিদ্বার প্রেস ক্লাব, জাফরগঞ্জ মীর আবদুল গফুর বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ, জোবেদা খাতুন মহিলা বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ, এলাহাবাদ মহাবিদ্যালয়সহ বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিরা।

রোববার দুপুর ২টায় প্রয়াত নেতার গ্রামের বাড়ি এলাহাবাদ গ্রামের 'চেতনায় মুক্তিযুদ্ধ' সংগঠনের কার্যালয়ের সামনের মাঠে চতুর্থ জানাজার পর অধ্যাপক মোজাফফর আহমদকে গার্ড অব অনার দেওয়া হয়। পরে তাকে এ সংগঠনের কার্যালয়ের দক্ষিণ পাশে দাফন করা হয়।

এর আগে শনিবার সকাল ১০টায় ঢাকা জাতীয় সংসদের দক্ষিণ প্লাজায় রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় শ্রদ্ধা নিবেদন ও প্রথম জানাজার পর অধ্যাপক মোজাফফরের কফিন ঢাকা ধানমণ্ডি হকার্স মার্কেটে ন্যাপের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে ও দুপুর সাড়ে ১২টায় কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার প্রাঙ্গণে রাখা হয়। আসরের নামাজের পর জাতীয় বায়তুল মোকাররম মসজিদ প্রাঙ্গণে তার দ্বিতীয় জানাজা হয়। রাত পৌনে ৮টায় প্রয়াত নেতার মরদেহ গ্রামের বাড়ি এলাহাবাদ নিয়ে আসা হয়।

শুক্রবার ৭টা ৪৯ মিনিটে রাজধানীর অ্যাপোলো হাসপাতালে বর্ষীয়ান রাজনীতিবিদ মোজাফফর আহমদ ইন্তেকাল করেন। তিনি স্ত্রী, এক মেয়েসহ অনেক আত্মীয়স্বজন, বন্ধুবান্ধব ও গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। তার স্ত্রী আমেনা আহমদ জাতীয় সংসদের সংরক্ষিত আসনে নবম ও দশম সংসদের সাংসদ ছিলেন।