সিসিকের ৭৮৯ কোটি টাকার বাজেট

প্রকাশ: ২৬ আগস্ট ২০১৯      

সিলেট ব্যুরো

আয়-ব্যয় সমান দেখিয়ে ২০১৯-২০ অর্থবছরের সিলেট সিটি করপোরেশনের (সিসিক) বাজেট ঘোষণা করেছেন মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী। নতুন অর্থবছর শুরুর প্রায় দুই মাস পর গতকাল রোববার দুপুরে নগরীর একটি হোটেলে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি ৭৮৯ কোটি ৩৮ লাখ ৪৭ হাজার টাকার বাজেট ঘোষণা করেন। ২০১৮ সালের ৩০ জুলাই সিসিক নির্বাচনে দ্বিতীয় মেয়াদে নির্বাচিত হওয়ার পর এটি তার প্রথম বাজেট। এর আগে ২০১৮-১৯ অর্থবছরে ৭৪৮ কোটি ৬৪ লাখ ৪০ হাজার টাকার বাজেট ঘোষণা করেন তিনি। এবার বাজেটের আকার বেড়েছে ৪০ কোটি ৭৪ লাখ ৭ হাজার টাকা।

বাজেট ঘোষণাকালে সিসিক মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী সিলেটবাসীকে ধন্যবাদ জানিয়ে আগামী পথচলায় নগরবাসীর সহযোগিতা কামনা করে বলেন, নগরবাসীকে দেওয়া প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী নগরীর উন্নয়নে এ বাজেট ঘোষণা করা হয়েছে।

বাজেটে উল্লেখযোগ্য আয়ের খাত দেখানো হয়েছে, হোল্ডিং ট্যাক্স ৪৪ কোটি ৮ লাখ ৮০ হাজার টাকা, স্থাবর সম্পত্তি হস্তান্তরের ওপর কর ৮ কোটি ৫০ লাখ টাকা, ইমরাত নির্মাণ ও পুনর্নির্মাণের ওপর কর ২ কোটি টাকা, পেশা ব্যবসার ওপর কর ৬ কোটি ৫০ লাখ টাকা, বিজ্ঞাপনের ওপর কর এক কোটি ২০ লাখ টাকা, বিভিন্ন মার্কেটের দোকান গ্রহীতার নাম পরিবর্তনের ফি ও নবায়ন ফি বাবদ ২৫ লাখ টাকা, বর্জ্য ব্যবস্থাপনা খাতে এক কোটি ২০ লাখ, পানি সংযোগ লাইনের মাসিক চার্জ বাবদ তিন কোটি ৮০ লাখ টাকা প্রভৃতি। সংবাদ সম্মেলনে মেয়র বাজেটে রাজস্ব খাতে ৬৭ কোটি ৪৩ লাখ ও অবকাঠামো খাতে  ৫২ কোটি ৮০ লাখ টাকা ব্যয় দেখান।

কর নির্ধারক চন্দন দাশের পরিচালনায় বাজেট ঘোষণাকালে সিসিকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা বিধায়ক রায় চৌধুরী, ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ডা. মো. ইউনুছুর রহমান, প্রধান প্রকৌশলী নূর আজিজুর রহমান ছাড়াও বিভিন্ন রাজনৈতিক দল, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ ও কাউন্সিলররা উপস্থিত ছিলেন।