বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষণায় লাভবান হয় শিল্প প্রতিষ্ঠান ড. আনিসুজ্জামান

প্রকাশ: ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৯      

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক

বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষণার মাধ্যমে নতুন নতুন জ্ঞান সৃষ্টি হয় এবং সেটিতে শিল্প প্রতিষ্ঠান লাভবান হয় বলে মন্তব্য করেছেন জাতীয় অধ্যাপক ড. আনিসুজ্জামান। গতকাল বুধবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ইনোভেশন, ক্রিয়েটিভিটি অ্যান্ড এন্ট্রাপ্রেনারশিপ সেন্টারের প্রথম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ মন্তব্য করেন। বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক মো. আখতারুজ্জামান উচ্চতর মানবিক ও সামাজিক বিজ্ঞান গবেষণা কেন্দ্র মিলনায়তনে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর দিনব্যাপী

কর্মসূচির উদ্বোধন করেন। সেন্টারের নির্বাহী পরিচালক রাশেদুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক গভর্নর ড. আতিউর রহমান। অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন ইন্টারন্যাশনাল বিজনেস বিভাগের সুপারনিউমারারি অধ্যাপক খন্দকার বজলুল হক এবং উচ্চতর মানবিক ও সামাজিক বিজ্ঞান গবেষণা কেন্দ্রের পরিচালক অধ্যাপক আব্দুল বাছির।

সেন্টারের প্রশংসা করে জাতীয় অধ্যাপক আনিসুজ্জামান বলেন, এই সেন্টারটি সত্যিই সৃজনশীলতার পরিচয় দিয়েছে। নিশ্চিতভাবে এটি সামনে এগিয়ে যাবে। এ সেন্টারের মাধ্যমেই বিশ্ববিদ্যালয় এবং শিল্প প্রতিষ্ঠানের মধ্যে সংযোগ তৈরি হবে।

উপাচার্য আখতারুজ্জামান দেশের শিল্প খাতসহ সার্বিক উন্নয়নে তরুণ শিক্ষার্থীদের সৃজনশীলতা ও উদ্ভাবনী শক্তিকে কাজে লাগানোর ওপর গুরুত্বারোপ করেন। বর্তমান যুগকে এন্ট্রাপ্রেনারশিপের যুগ হিসেবে বর্ণনা করে তিনি বলেন, বিশ্বায়নের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় নতুন নতুন উদ্যোক্তা তৈরি করতে হবে। সফল উদ্যোক্তা হিসেবে প্রস্তুত হওয়ার জন্য তিনি শিক্ষার্থীদের প্রতি আহ্বান জানান।

আতিউর রহমান বলেন, বিগত ১০ বছরে বাংলাদেশের অর্থনীতিতে উত্তরোত্তর উন্নতি পরিলক্ষিত হচ্ছে। এই উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে আমাদের প্রয়োজন উদ্ভাবনে জোর দেওয়া। আর এর চালিকাশক্তি হবে বিশ্ববিদ্যালয়গুলো।