ভিসা সহজ করতে থাইল্যান্ডের প্রতি কৃষিমন্ত্রীর আহ্বান

প্রকাশ: ০৩ ডিসেম্বর ২০১৯      

সমকাল প্রতিবেদক

কৃষিমন্ত্রী ড. আব্দুর রাজ্জাক বলেছেন, বাংলাদেশ ও থাইল্যান্ড কৃষির ওপর বিশেষভাবে নির্ভরশীল এবং কৃষিক্ষেত্রে দুই দেশের মধ্যে জ্ঞান ও প্রযুক্তির আদান-প্রদানের অনেক সুযোগ আছে। কৃষি খাতে সহযোগিতা বৃদ্ধি এবং সম্পর্ক ঘনিষ্ঠ করার লক্ষ্যে ইতোমধ্যে দুই দেশের মধ্যে দুটি সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর হয়েছে। এসব কারণে থাইল্যান্ড ও বাংলাদেশের মধ্যে বাণিজ্য সম্পর্ক বাড়ানোর অপার সম্ভাবনা রয়েছে।

গতকাল সোমবার সচিবালয়ে নিজ কার্যালয়ে থাইল্যান্ডের রাষ্ট্রদূত অরুণরাং ফতুং হামফ্রেইস সাক্ষাৎ করতে এলে কৃষিমন্ত্রী এসব কথা বলেন। থাইল্যান্ডকে ভিসা জটিলতা দূর করতে আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, বাংলাদেশ থেকে অনেক পর্যটক থাইল্যান্ডে ভ্রমণ করেন। যদি ভিসা সমস্যা সমাধান করা যায় তাহলে দুই দেশের বাণিজ্যিক সম্পর্ক আরও একধাপ এগিয়ে যাবে।

বাংলাদেশে নিযুক্ত থাইল্যান্ডের রাষ্ট্রদূত বলেন, বর্তমানে ৩২টি থাই কোম্পানি বাংলাদেশে সরাসরি বিনিয়োগ করেছে। ভিসা জটিলতা সম্পর্কে রাষ্ট্রদূত বলেন, প্রতিদিন ৮০০ আবেদন জমা পড়ে, আমাদের লক্ষ্য তিন কার্য দিবসের মধ্যে ভিসা কার্যক্রম সম্পন্ন করা। যথাযথ কাগজপত্র না থাকা ও ভিন্ন মাধ্যমে আবেদনের কারণে ভিসা দেওয়ার ক্ষেত্রে সময়ক্ষেপণ হয়।