অনলাইনে আয়োজন

পাকিস্তানি তরুণের সঙ্গে বাংলাদেশি তরুণীর বিয়ে

প্রকাশ: ২৩ মে ২০২০

জয়পুরহাট প্রতিনিধি

বাংলাদেশি তরুণী মুরসালিন সাবরিনার সঙ্গে পাকিস্তানের তরুণ মুহাম্মদ উমের প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। উভয়ের পরিবার মেনে নেওয়ায় গত মার্চে তাদের বিয়ের দিনও ঠিক হয়। এ জন্য উমের ও তার পরিবারের কয়েকজন সদস্যের বাংলাদেশে আসার কথা ছিল। কিন্তু করোনাভাইরাসের কারণে সবকিছু ওলটপালট হয়ে যায়। তবে আটকে থাকেনি এই প্রেমিক যুগলের বিয়ে। দুই পরিবারের সম্মতিতে গত বৃহস্পতিবার রাতে অনলাইনে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হয়েছেন তারা।

মুরসালিন সাবরিনা জয়পুরহাট পৌর শহরের কাশিয়াবাড়ি এলাকার ব্যাংক কর্মকর্তা মোস্তাফিজুর রহমানের মেয়ে। আর মুহাম্মদ উমের পাকিস্তানের পাঞ্জাব প্রদেশের মুলতান শাহরুখনে আলম কলোনির ব্যবসায়ী বিলাল আহম্মেদের ছেলে। কনের বাড়িতে স্বজন ও প্রতিবেশীদের নিয়ে সামাজিক দূরত্ব মেনে বিয়ের আয়োজন করা হয়।

কনের পরিবার সূত্রে জানা গেছে, মুরসালিন সাবরিনা ২০১৮ সাল থেকে আমেরিকান অনলাইন বিশ্ববিদ্যালয় ইউনিভার্সিটি অব দ্য পিপলসে কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগে পড়াশোনা করছেন। মুহম্মদ উমেরও একই বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ছেন। ওই বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের নিজস্ব ওয়েবসাইট 'ইয়েমারে'র মাধ্যমে দু'জনের পরিচয় হয় এবং একপর্যায়ে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। অভিভাবকরা ২০১৯ সালে তাদের সম্পর্কের কথা জানতে পারেন এবং তাদের বিয়ের ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেন। এ জন্য উমের ও তার পরিবারের সদস্যরা বাংলাদেশে আসার জন্য গত ৭ ফেব্রুয়ারি ভিসার আবেদনও করেন।

সাবরিনার বাবা মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে পাকিস্তান থেকে জামাই এসে মেয়েকে নিয়ে যাবেন।