পিপলস লিজিং পুনর্গঠন করে টাকা ফেরত দাবি

প্রকাশ: ১৯ জানুয়ারি ২০২১

সমকাল প্রতিবেদক

পিপলস লিজিং পুনর্গঠন করে টাকা ফেরত দাবি

আমানত ফিরিয়ে দেওয়ার দাবিতে সোমবার রাজধানীর মতিঝিলে পিপলস লিজিং অ্যান্ড ফাইন্যান্স কোম্পানির কার্যালয়ের সামনে আমানতকারীদের মানববন্ধন- সমকাল

সমস্যাগ্রস্ত পিপলস লিজিং অ্যান্ড ফাইন্যান্সিয়াল সার্ভিসেস অবসায়ন না করে পুনর্গঠনের মাধ্যমে অর্থ ফেরত চান আমানতকারীরা। যেভাবে ফারমার্স থেকে পদ্মা ব্যাংক ও বিসিআই থেকে ইস্টার্ন ব্যাংক নামে পুনর্গঠন করা হয়েছে, একই উপায়ে পুনর্গঠন করে দ্রুত অর্থ ফেরতের ব্যবস্থার অনুরোধ করা হয়েছে। গতকাল সোমবার বাংলাদেশ ব্যাংকের সামনে আয়োজিত মানববন্ধন থেকে এমন দাবি করা হয়। পিপলস লিজিংয়ে ব্যক্তি ও ক্ষুদ্র আমানতকারীদের কাউন্সিলের ব্যানারে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

মানববন্ধন শেষে কাউন্সিলের সমন্বয়কারী আতিকুর রহমান আতিকের নেতৃত্বে একটি প্রতিনিধি দল গভর্নরের সঙ্গে দেখা করে স্মারকলিপি জমা দেয়। ফিরে এসে তারা সাংবাদিকদের জানায়, প্রতিষ্ঠানের অ্যাকাউন্টে পর্যাপ্ত অর্থ জমা হলেই আদালতের মাধ্যমে তা ফেরতের উদ্যোগ নেওয়ার কথা বলা হয়েছে। তবে এত দেরি না করে দুদক পি কে হালদারের যে অর্থ জব্দ করেছে, তা থেকে ব্যক্তি পর্যায়ের ৬ হাজার আমানতকারীর ৭০০ কোটি টাকা ফেরত দেওয়ার অনুরোধ জানান।

মানববন্ধনে লিখিত বক্তব্যে বাংলাদেশ ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান খাতের শৃঙ্খলা ফেরাতে প্রাধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ চাওয়া হয়। তারা বলেন, বাংলাদেশ ব্যাংকের নিয়ন্ত্রণাধীন একটি প্রতিষ্ঠান এভাবে অর্থ ফেরত না দিয়ে বছরের পর বছর পার করবে, তা হতে পারে না। আগামী ১৫ দিনের মধ্যে টাকা ফেরত না দিলে তারা বাংলাদেশ ব্যাংকের সামনে অবস্থান কর্মসূচি দেবেন।