সরকারি চাকরিতে ক্যাডার কর্মকর্তা নিয়োগের জন্য ৪৩তম বিসিএসের সার্কুলার অনুযায়ী আগামী ৩১ জানুয়ারি পর্যন্ত আবেদন নেওয়ার কথা। তবে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যদের দাবির কারণে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন (ইউজিসি) এই আবেদনের সময়সীমা আগামী ৩১ মার্চ পর্যন্ত বাড়াতে সরকারি কর্ম কমিশনকে (পিএসসি) অনুরোধ জানিয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার ইউজিসি থেকে চিঠি দিয়ে পিএসসিকে এ অনুরোধ জানানো হয়। পিএসসি চেয়ারম্যান বরাবর লেখা চিঠিতে স্বাক্ষর করেছেন ইউজিসির সচিব।

করোনাভাইরাসের কারণে সরকারের নির্দেশনা অনুযায়ী দেশের সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান গত বছরের ১৮ মার্চ থেকে বন্ধ রয়েছে। এ অবস্থায় বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর পর্যায়ে সেমিস্টারের চূড়ান্ত পরীক্ষা নির্ধারিত সময়ে নেওয়া সম্ভব হয়নি।

এ বিষয়ে গত ১৩ ডিসেম্বর ইউজিসি চেয়ারম্যানের সভাপতিত্বে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর উপাচার্যদের বৈঠক হয়। এতে বিশ্ববিদ্যালয়ের স্নাতক ও স্নাতকোত্তর পর্যায়ের সেমিস্টারের চূড়ান্ত পরীক্ষা স্বাস্থ্যবিধি মেনে গ্রহণের সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। সভায় বিসিএস পরীক্ষার আবেদনের সময় বৃদ্ধির ব্যাপারে উপাচার্যরা ইউজিসিকে পদক্ষেপ নেওয়ার অনুরোধ জানান। ইউজিসিও এ প্রস্তাবের সঙ্গে একমত পোষণ করে।

গত ডিসেম্বরে ৪৩তম বিসিএসের সার্কুলার দেয় পিএসসি। এ বিসিএসে বিভিন্ন ক্যাডারে এক হাজার ৮১৪ জন কর্মকর্তা নেওয়া হবে। সার্কুলার অনুযায়ী, ৪৩তম বিসিএসের আবেদন কার্যক্রম শুরু হয় ৩০ ডিসেম্বর। শেষ হবে ৩১ জানুয়ারি সন্ধ্যা ৬টায়।

মন্তব্য করুন