প্রশান্ত কুমার (পি কে) হালদারের ব্যক্তিগত আইনজীবী সুকুমার মৃধা ও তার মেয়ে অনিন্দিতা মৃধাকে গ্রেপ্তার করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। পি কে হালদারের সঙ্গে যোগসাজশে নামে-বেনামে অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে গতকাল বৃহস্পতিবার তাদের গ্রেপ্তার করেন দুদক উপপরিচালক ও তদন্ত কর্মকর্তা মো. সালাহউদ্দিন।

পূর্বনির্ধারিত সময় অনুযায়ী গতকাল সুকুমার ও অনিন্দিতাকে জিজ্ঞাসাবাদ করে দুদক। পরে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। দুদক

সূত্র জানিয়েছে, তারা দেশে

পি কে হালদারের সম্পদেরও দেখভাল করতেন।

তদন্ত কর্মকর্তা গতকালই তাদের ঢাকা মহানগর আদালতের সিনিয়র স্পেশাল জজ কে এম ইমরুল কায়েশের আদালতে সোপর্দ করে তিন দিনের রিমান্ড চেয়ে আবেদন করেন। শুনানির পর আদালত তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। তারা বর্তমানে জেলহাজতে আছেন। সেখান থেকে তাদের রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ

করা হবে।

দুদক সচিব মো. আনোয়ার হোসেন হাওলাদার গতকাল সাংবাদিকদের বলেন, জিজ্ঞাসাবাদকালে তদন্ত কর্মকর্তা তাদের নামে-বেনামে সম্পদের তথ্য পেয়েছে, যা সন্দেহজনক। পি কে হালদারের সঙ্গে যোগসাজশে দুর্নীতির মাধ্যমে সম্পদ অর্জনের অভিযোগে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

২৭১ কোটি ৯১ লাখ ৫৫ হাজার ৩৫৫ টাকার অবৈধ সম্পদ অর্জন ও দেড় হাজার কোটি টাকা পাচারের অভিযোগে দুদকের সহকারী পরিচালক মামুনুর রশীদ চৌধুরী বাদী হয়ে পি কে হালদারের বিরুদ্ধে চলতি বছরের ৮ জানুয়ারি একটি মামলা করেন। এই মামলাটি তদন্ত করছেন উপপরিচালক মো. সালাহউদ্দিন।

এর আগে এই মামলায় দুদকের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে আদালত পি কে হালদারের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেছেন। ইন্টারপোলও তার বিরুদ্ধে ইতোমধ্যে রেড অ্যালার্ট জারি করেছে। একাধিক সূত্রে জানা গেছে, পি কে হালদার বর্তমানে কানাডায় অবস্থান করছেন।



সম্পাদনা : ইমতিয়ার, প্রতিবেদন : হকিকত জাহান জকি, শব্দ : ২২৩ (৩৮৪)

মন্তব্য করুন