জামালপুরের সরিষাবাড়ী পৌরসভা নির্বাচনের প্রচারে আওয়ামী লীগ প্রার্থী মাঠে থাকলেও বিএনপির প্রার্থী এখনও নিষ্ফ্ক্রিয়।

নির্বাচনী এলাকা ঘুরে জানা যায়, ১১ জানুয়ারি প্রতীক পাওয়ার পর থেকে আওয়ামী লীগ দলীয় মেয়র প্রার্থী ও কাউন্সিলররা মাইকিং, পোস্টার ও লিফলেটের মাধ্যমে তাদের প্রচার চালিয়ে আসছেন। তবে বিএনপি প্রার্থী ও বিএনপির বিদ্রোহী প্রার্থীর কোনো প্রকার নির্বাচনী প্রচার দেখা যায়নি। এর ফলে এ নির্বাচন ঘনিয়ে এলেও চায়ের দোকান, রাস্তাঘাট ও হাটবাজারে আলোচনা, আড্ডা ও সাধারণ ভোটারদের মাঝে কোনো নির্বাচনী আমেজ লক্ষ্য করা যাচ্ছে না।

এ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী উপজেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি মনির উদ্দিন, বিএনপির প্রার্থী উপজেলা যুবদলের আহ্বায়ক ফয়জুল কবীর তালুকদার শাহীন ও পৌর বিএনপির সহসভাপতি স্বতন্ত্র বিএনপি বিদ্রোহী প্রার্থী ফজলুল হক খান (নারিকেল গাছ) প্রতিদ্বন্দ্বিতার মাঠে রয়েছেন। এ ছাড়া ৯টি ওয়ার্ডে সাধারণ কাউন্সিলর ৪৩ ও সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর পদে ১০ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

পৌরসভার ৪ নম্বর ওয়ার্ডের সাধারণ কাউন্সিলর প্রার্থী (ব্রিজ) শাহিন মিয়া বলেন, প্রচারে কোনো বাধা নেই। তবে নির্বাচনের দিন সাধারণ ভোটাররা তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে পারবেন কিনা তা নিয়ে আশঙ্কা করছেন তারা।

বিএনপির বিদ্রোহী স্বতন্ত্র প্রার্থী (নারিকেল গাছ) ফজলুল হক খান বলেন, নির্বাচনী প্রচারে মাইকিং ও পোস্টার না থাকলেও একা একা গ্রামে মহল্লায় ঘুরে ভোট চাইছি। তিনি বলেন, ভোটের দিন কেন্দ্র দখলসহ ভোট ছিনতাইয়ের আশঙ্কা করছেন সাধারণ ভোটাররা।

আওয়ামী লীগের প্রার্থী মনির উদ্দিন বলেন, শেখ হাসিনার উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে কাজ করে যাচ্ছি। এতে নৌকার জোয়ার বইছে। আগামী ৩০ জানুয়ারি নির্বাচনে অবশ্যই নৌকার বিজয় হবে।

বিএনপির প্রার্থী ফয়জুল কবীর তালুকদার শাহীনের ছোট ভাই জামালপুর জেলা বিএনপির সভাপতি ফরিদুল কবীর তালুকদার শামীম বলেন, আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীর সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের প্রতিরোধে মুখে ধানের শীষ প্রতীকে মাইকিং, পোস্টারসহ প্রচার-প্রচারণা পর্যন্ত করা যাচ্ছে না। নির্বাচনের সুষ্ঠু পরিবেশের জন্য প্রশাসনের কাছে বারবার জানিয়ে আসছি। নির্বাচন সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ হলে ধানের শীষের প্রার্থীর বিপুল ভোটে বিজয় হবে।

২১ দশমিক ৪৮ বর্গকিলোমিটার আয়তন নিয়ে সরিষাবাড়ী পৌরসভা গঠিত হয়েছে ১৯৯০ সালে। এখানে ভোটার রয়েছেন ৪২ হাজার ৮৬৯ জন। তৃতীয় ধাপের ৩০ জানুয়ারি এই পৌরসভায় ভোটগ্রহণ হবে।

মন্তব্য করুন