যুক্তরাজ্যে মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম নারী সংগঠক কুলসুম উল্লাহ (৮৩) বার্ধক্যজনিত কারণে গত বৃহস্পতিবার লন্ডনের একটি হাসপাতালে মারা গেছেন (ইন্নালিল্লাহি ... রাজিউন)। তিনি এক ছেলে, চার মেয়েসহ বহু গুণগ্রাহী রেখে যান।

কুলসুম উল্লাহর মেয়ে আলমা হক মরহুম সাংবাদিক ও বঙ্গবন্ধুর প্রেস সেক্রেটারি আমিনুল হক বাদশার স্ত্রী। আলমা হক জানিয়েছেন, হাসপাতালের আনুষ্ঠানিকতা শেষে গ্রেটার লন্ডনের ব্রমলির কবরস্থানে স্বামী মুক্তিযুদ্ধের আরেক সংগঠক মরহুম নজিব উল্লাহর পাশে কুলসুমকে সমাহিত করা হবে। তিনি দীর্ঘদিন ধরে লন্ডনে বসবাস করে আসছিলেন। বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধে লন্ডনে বসবাসের সময়ে গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করেন কুলসুম উল্লাহ। যুদ্ধের পক্ষে অর্থ ও জনমত সংগ্রহের জন্য একাত্তরে স্বামী নজিব উল্লাহর সঙ্গে ব্রিটেনের এক প্রান্ত থেকে অন্য প্রান্তে গাড়ি চালিয়ে ঘুরেছেন তিনি। ওই সময়ে মহিলা সমিতির পক্ষে রাস্তায় রাস্তায় নানা ধরনের জিনিস বিক্রি করে অর্থ সংগ্রহ করতেন তিনি। নারীদের নিয়ে স্বাধীনতার পক্ষে জনমত গড়ে তুলতে সভা করেছেন কুলসুম। মৃত্যুর আগ পর্যন্ত তিনি সমাজসেবামূলক কর্মকাণ্ডে জড়িত ছিলেন। ২০১৬ সালে লন্ডনে জয় বাংলা মুক্তিযুদ্ধ সম্মাননা দেওয়া হয় কুলসুম উল্লাহকে।

মন্তব্য করুন