করোনার টিকা প্রয়োগের তালিকা নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন ১৭ জন বিশিষ্ট নাগরিক। চিকিৎসক-নার্স ছাড়া অন্যদের বয়স বিবেচনায় করোনার টিকা প্রয়োগের দাবি জানিয়েছেন তারা।

গতকাল শনিবার এক যুক্ত বিবৃতিতে তারা বলেন, 'প্রাণঘাতী করোনা সংক্রমণ প্রতিরোধে দ্রুত টিকা সংগ্রহের উদ্যোগ গ্রহণ করায় আমরা সরকারকে ধন্যবাদ জানাই। কিন্তু টিকা প্রয়োগের জন্য যে তালিকা গণমাধ্যমে প্রকাশিত হয়েছে, তা নানা প্রশ্নের উদ্রেক করেছে। বিস্ময়কর ব্যাপার হলো, এ তালিকার কোনো পর্যায়ে শিল্পী, সাহিত্যিক ও সংস্কৃতিকর্মীদের নাম নেই, যা ইতোমধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি করেছে।' বিবৃতিতে বলা হয়, 'করোনা ভ্যাকসিনের তালিকা প্রণয়নে সংশ্নিষ্ট দপ্তরকে ন্যায়সংগত ও নিরপেক্ষ ভূমিকা পালন করতে হবে। আমরা মনে করি, চিকিৎসা ব্যবস্থার সঙ্গে যুক্ত সব বয়সের ডাক্তার, নার্স ও স্বাস্থ্যকর্মী টিকায় অগ্রাধিকার পাবেন। এর বাইরে দেশের সব নাগরিকই করোনা সংক্রমণের সমান ঝুঁকিতে রয়েছে। শ্রেণি-পেশা নয়; বয়স বিবেচনায় দেশের সব নাগরিককে পর্যায়ক্রমে করোনা ভ্যাকসিন দেওয়াই হবে মানবিক এবং যুক্তিযুক্ত। এর বাইরে পক্ষপাতদুষ্ট যে কোনো তালিকা প্রণয়ন সরকারের সামগ্রিক সাফল্য ও ভাবমূর্তিকে প্রশ্নবিদ্ধ করবে। আমরা সংশ্নিষ্ট সবাইকে বিষয়টি গুরুত্ব সহকারে বিবেচনা করার আহ্বান জানাই।'

বিবৃতিদাতারা হলেন- অধ্যাপক অনুপম সেন, অধ্যাপক শামসুজ্জামান খান, রামেন্দু মজুমদার, ডা. সারোয়ার আলী, ফেরদৌসী মজুমদার, মামুনুর রশিদ, মফিদুল হক, নাসির উদ্দীন ইউসুফ, গোলাম কুদ্দুছ, মিনু হক, হাসান আরিফ, মিলন কান্তি দে, কামাল পাশা চৌধুরী, কামাল বায়েজিদ, মিজানুর রহমান, আহকাম উল্লাহ্‌ ও বিশ্বজিৎ রায়। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি।

মন্তব্য করুন