যেখানেই হাত দিচ্ছেন, সেখানেই দখলদার দেখতে পাচ্ছেন বলে মন্তব্য করেছেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র আতিকুল ইসলাম। তিনি বলেছেন, 'ঢাকা শহরের উন্নয়ন করতে হবে। এটা আমাদের সবার প্রত্যাশা। কিন্তু যেখানেই হাত দিচ্ছি, সেখানেই অবৈধ দখলদার দেখতে পাচ্ছি। খাল, মার্কেট, রাস্তাঘাট, মাঠ- সর্বত্র অবৈধ দখলদার। পরবর্তী প্রজন্মের জন্য আমাদেরকে সুন্দর খেলার মাঠ, সুন্দর খাল, রাস্তাঘাট রেখে যেতে হবে। আমাদের দায়িত্ব হচ্ছে প্রধানমন্ত্রীকে সর্বোচ্চ সহযোগিতা করা।'

গতকাল শনিবার রাজধানীর মোহাম্মদপুরের ইকবাল রোডে উদয়াচল পার্ক ও খেলার মাঠ উদ্বোধনকালে তিনি এ কথা বলেন। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন বাংলাদেশে নিযুক্ত ভারতীয় হাইকমিশনার বিক্রম কুমার দোরাইস্বামী, বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন এমপি, স্থানীয় সংসদ সদস্য সাদেক খান এমপি।

উদ্বোধন শেষে ডিএনসিসি ও বাংলাদেশে ভারতীয় দূতাবাসের মধ্যে এক প্রীতি ক্রিকেট ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়। খেলায় ডিএনসিসি ৫ উইকেট হারিয়ে ৩০০ রান করে। জবাবে ভারতীয় দূতাবাস ১৩ ওভারে ১২৮ রান করে অলআউট হয়ে যায়।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে আতিকুল বলেন, ডিএনসিসির বিভিন্ন এলাকায় মাঠ ও পার্ক উন্নয়ন করে যাচ্ছি। এই পার্কটি তারই ধারাবাহিকতা। ডিএনসিসি থেকে ১০টি ক্রিকেট খেলার মাঠ আমরা করে দিচ্ছি। কিছু মাঠ আন্তর্জাতিক মানের হবে। মাঠে ক্রিকেটের পাশাপাশি অন্যান্য খেলাধুলাও করা যাবে। এই মাঠে বর্ষায় যাতে খেলা যায়, এ জন্য পানি নিস্কাশনের ভালো ব্যবস্থা রয়েছে। ব্যায়ামাগারের ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। প্রতিবন্ধীদের জন্য বিশেষ টয়লেটের ব্যবস্থা আছে। অন্তর্ভুক্তিমূলক শহর করাই আমাদের লক্ষ্য।

মেয়র আরও বলেন, মুক্তিযোদ্ধারা এ দেশের জন্য প্রাণ দিয়েছেন। আমাদের প্রাণ দিতে হবে না; খেলার মাঠ যেন আমরা দখল না করি, খাল যেন ময়লা না করি, যেন অবৈধভাবে দখল না করি। মোহাম্মদপুরে মোট আটটি মাঠ হবে। ডিএনসিসির কোথাও খাসজমি থাকলে সেখানে খেলার মাঠ তৈরি করা হবে। যত বেশি খেলার মাঠ হবে, আমাদের শিশুরা তত বেশি খেলতে পারবে।

অনুষ্ঠান শেষে অতিথিরা মাঠের বিভিন্ন স্থানে গাছের চারা রোপণ করেন। অনুষ্ঠানে স্থপতি ইকবাল হাবিব, ডিএনসিসির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা সেলিম রেজা, ওয়ার্ড কাউন্সিলর সৈয়দ হাসান নূর ইসলাম, সংরক্ষিত আসনের কাউন্সিলর শাহীন আক্তার সাথী প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

মন্তব্য করুন