রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতাল থেকে চুরি হওয়ার ২৭ ঘণ্টা পর এক নবজাতককে উদ্ধার করেছে পুলিশ। গতকাল শনিবার দুপুরে নগরীর বোয়ালিয়া থানার মোন্নাফের মোড় এলাকার পল্টুর বস্তি থেকে শিশুটিকে উদ্ধার করা হয়। এ সময় অভিযুক্ত মৌসুমি বেগম ও তার স্বামী মো. সজীবকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তারা ওই বস্তিতেই থাকেন। রাজশাহী মহানগর পুলিশের (আরএমপি) গোয়েন্দা শাখা এ অভিযান চালায়।

আরএমপি কমিশনার আবু কালাম সিদ্দিক জানান, নবজাতক চুরি করা ওই নারী নিঃসন্তান। আট বছর আগে বিয়ে হলেও তাদের সন্তান নেই। তবে তিনি কোনো শিশু চোর চক্রের সঙ্গে জড়িত কিনা, তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। কন্যাশিশুটির নানি তাপসী রবি দাস জানান, ওই নবজাতকের নাম রাখা হয়েছে লক্ষ্মী। তারা শিশুটিকে ফিরে পেয়ে খুবই খুশি। শিশুটির বাবা গোপাল রবি দাস নগরীর আইডি বাগানপাড়া এলাকার বাসিন্দা। তিনি জানান, গত বুধবার তার স্ত্রী কমলী রবি দাস শিল্পীকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। রাতে অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে কন্যাসন্তানের জন্ম দেন তিনি। বৃহস্পতিবার সকালে অভিযুক্ত মৌসুমি তাদের শিশুকে দেখতে গিয়েছিলেন। পরদিন সকালে তিনি ফের দেখতে গেলে মৌসুমির উপস্থিতিতে শিশুটিকে ঘুমে রেখে খাবার আনতে যান তার মা। এ সুযোগে শিশুটিকে নিয়ে পালিয়ে যান মৌসুমি।

মন্তব্য করুন