আইডিআরএ চেয়ারম্যানের ঘুষ দাবি

অভিযোগ প্রত্যাহারের আবেদন আমলে না নিতে দুদককে নির্দেশ

প্রকাশ: ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২১

সমকাল প্রতিবেদক

বীমা নিয়ন্ত্রক সংস্থা আইডিআরএ চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে করা ঘুষের অভিযোগ প্রত্যাহার চেয়ে করা আবেদন দুর্নীতি দমন কমিশনকে (দুদক) আমলে না নিতে নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমান সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ গতকাল মঙ্গলবার এক পর্যবেক্ষণে এ নির্দেশ দেন।

এ তথ্য জানিয়েছেন ডেল্‌টা লাইফের সিইও এবং স্থগিত হওয়া পরিচালনা পর্ষদের একাধিক সদস্যের পক্ষে নিযুক্ত আইনজীবী কারিশমা জাহান। তবে আইডিআরএর পক্ষে আইনজীবী ইমতিয়াজ ফারুক বলেছেন, আদালতের লিখিত আদেশ দেখা ছাড়া এ বিষয়ে তিনি কিছু বলতে পারবেন না।

গত ১৮ ফেব্রুয়ারি ডেল্‌টা লাইফের কর্মকর্তা পল্লব ভৌমিক আইডিআরএ চেয়ারম্যান ড. এম মোশাররফ হোসেনের বিরুদ্ধে আনা ঘুষ দাবির অভিযোগ প্রত্যাহার চেয়ে দুদকে আবেদন করেছেন। এর আগে অভিযোগটি করেছিলেন গত ৭ ও ৯ ডিসেম্বর।

জানতে চাইলে ব্যারিস্টার কারিশমা জাহান সমকালকে বলেন, সুলতানুল আবেদীন মোল্লা প্রশাসক হিসেবে নিয়োগ পাওয়ার পর ডেল্‌টা লাইফ ইন্স্যুরেন্সের কর্মকর্তা পল্লব ভৌমিককে চাপ দিয়ে আইডিআরএর চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে করা ঘুষ দাবির অভিযোগ প্রত্যাহার করতে গত ১৭ ফেব্রুয়ারি লিখিত আদেশ দিয়েছেন।

আদালত বলেছেন, ঘুষ দাবির অভিযোগটি দুদক থেকে প্রত্যাহার করতে সংশ্নিষ্ট কর্মকর্তাকে আদেশ দিয়ে প্রশাসক (সুলতানুল আবেদীন মোল্লা) সীমা লঙ্ঘন করেছেন। এটা আদালত অবমাননার শামিল। প্রশাসককে তার নিয়োগের শর্ত অনুযায়ী কাজ করারও আদেশ দিয়েছেন আদালত।

আদালতের এমন পর্যবেক্ষণের বিষয়ে কারিশমা জাহান বলেন, এর আগে দুদকে করা অভিযোগটি দ্রুত নিষ্পত্তি চেয়ে করা এক রিটের পরিপ্রেক্ষিতে গত ২৮ জানুয়ারি এক মাসের মধ্যে তদন্ত করে প্রতিবেদন দিতে দুদককে আদেশ দিয়েছিলেন আদালত। দুদককে আগামী ২৭ ফেব্রুয়ারির মধ্যে এ বিষয়ে অগ্রগতি বা তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিতে হবে।

তিনি আরও জানান, সুলতানুল আবেদীন মোল্লা প্রশাসক হিসেবে নিয়োগ পাওয়ার পর ডেল্‌টার ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা প্রশাসকের সামনে পল্লব ভৌমিককে অভিযোগটি প্রত্যাহার করতে চাপ প্রয়োগ করেন। অন্যথায় জীবননাশের বা মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানি হুমকি দেন। হুমকি ও চাপ সহ্য করতে না পেরে পল্লব ভৌমিক গত ১৩ ফেব্রুয়ারি মুগদা থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেছেন। এ তথ্য জানানোর পর আদালত এমন আদেশ ও পর্যবেক্ষণ দিয়েছেন।

এদিকে ডেল্‌টা লাইফ ইন্স্যুরেন্সে কোনো আর্থিক অনিয়ম হয়েছে কিনা, তা খতিয়ে দেখতে স্পেশাল অডিটর নিয়োগ দিয়েছে শেয়ারবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিএসইসি। সংস্থার চেয়ারম্যান শিবলী রুবাইয়াত উল ইসলাম জানান, অর্থ মন্ত্রণালয়ের পরামর্শে এ স্পেশাল অডিটর নিয়োগ করা হয়েছে।

জানতে চাইলে বীমা কোম্পানিটির স্থগিত হওয়া পরিচালনা পর্ষদের সদস্য যিয়াদ রহমান সমকালকে বলেন, আইডিআরএ যখন মিথ্যা অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে ক্রমাগত প্রশাসক নিয়োগের হুমকি দিচ্ছিল, তখন (গত ২৬ জানুয়ারি) বিশেষ অডিটর দিয়ে আর্থিক অবস্থা যাচাই করতে অর্থ মন্ত্রণালয়ে আবেদন করেছিলাম। তার প্রেক্ষিতে বিএসইসি অডিটর নিয়োগ করেছে। এ পদক্ষেপকে স্বাগত জানাই। ডেল্‌টা লাইফে কোনো আর্থিক অনিয়ম আনা হয়নি। আইডিআরএর চেয়ারম্যান পদে মোশাররফ হোসেন ব্যক্তিগত স্বার্থে পছন্দের অডিটরকে দিয়ে মিথ্যা অভিযোগ এনেছেন। নিরপেক্ষ অডিট হলে তা পরিস্কার হবে।