প্রখ্যাত সাংবাদিক ও কলামিস্ট এবিএম মূসার সপ্তম মৃত্যুবার্ষিকী আজ শুক্রবার। এবার করোনা পরিস্থিতির কারণে তার মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে কোনো কর্মসূচি নেওয়া হয়নি।

জাতীয় প্রেস ক্লাবের অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা এবং আজীবন সদস্য এবিএম মূসা ১৯৩১ সালে তার নানাবাড়ি ফেনী জেলার ধর্মপুর গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। এবিএম মূসা দীর্ঘ ৬৪ বছর ধরে সাংবাদিকতার বিভিন্ন ক্ষেত্রে অবদান রেখেছেন।

১৯৫০ সালে দৈনিক ইনসাফ দিয়ে সাংবাদিকতা শুরু করেন। ওই বছর তিনি ইংরেজি দৈনিক পাকিস্তান অবজারভারে যোগ দেন। ১৯৭১ সালে যুদ্ধের সময় বিবিসি, সানডে টাইমস প্রভৃতি পত্রিকার সংবাদদাতা হিসেবে তিনি রণাঙ্গন থেকে সংবাদ পাঠাতেন।

স্বাধীনতার পর তিনি বিটিভির মহাব্যবস্থাপক, মর্নিং নিউজের সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। তিনি স্বাধীন বাংলাদেশের প্রথম জাতীয় নির্বাচনে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। ১৯৮১ থেকে ১৯৮৫ সাল পর্যন্ত তিনি বাংলাদেশ প্রেস ইনস্টিটিউটের মহাপরিচালক এবং ১৯৮৫ থেকে ১৯৮৭ সাল পর্যন্ত বংলাদেশ সংবাদ সংস্থার মহাব্যবস্থাপক ও প্রধান সম্পাদক ছিলেন। ২০০৪ সালে তিনি কিছুদিন যুগান্তরের সম্পাদকের দায়িত্ব\হপালন করেন। এবিএম মূসা জাতীয় প্রেস ক্লাবের চারবার সভাপতি\হএবং তিনবার সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন।

মন্তব্য করুন