পুলিশ দিয়ে পিটিয়ে ভোট নেওয়ার ঘোষণা দিয়ে আলোচনায় এসেছিলেন কক্সবাজারের উখিয়ার হলদিয়া পালং ইউনিয়নের বিতর্কিত চেয়ারম্যান শাহ আলম। এবার তার বিরুদ্ধে সরকারি ত্রাণসামগ্রীসহ অর্থ আত্মসাতের অভিযোগ করেছেন ওই ইউনিয়ন পরিষদের পাঁচ সদস্য। এ অভিযোগে গতকাল বৃহস্পতিবার কক্সবাজার প্রেস ক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করেন ইউপি সদস্য জয়নাব বেগম লিপি, শাহাজাহান চৌধুরী, মো. মোক্তার, রফিক আহম্মদ ও ফজল করিম।

সংবাদ সম্মেলনে চেয়ারম্যানের বাসায় দ্রুত অভিযান চালিয়ে সরকারি ত্রাণসামগ্রী উদ্ধারের দাবি জানানো হয়। তারা অভিযোগ করেন, ২০১৬ সালের ৪ জুন চেয়ারম্যান নির্বাচিত হওয়ার পর থেকে শাহ আলম হলদিয়া পালং ইউনিয়ন পরিষদে দুর্নীতির ইতিহাস রচনা করেছেন। এর পর থেকে ভিজিডি, ভিজিএফ, বয়স্কভাতা, বিধবা ভাতা, প্রতিবন্ধী ভাতাসহ সরকারি প্রকল্পের অর্থ আত্মসাৎ করে আসছে তিনি। এনজিওর দেওয়া বিভিন্ন ত্রাণসামগ্রী পরিষদে না এনে চেয়ারম্যান নিজ বাসায় নিয়ে যান। এসব ত্রাণ কোথায় যায় বা কাকে দেওয়া হয় তার কোনো হিসাব জানানো হয় না। তিনি সাবেক মন্ত্রী পরিষদ সচিব শফিউল আলমের ছোট ভাই। তার পরিচয় ব্যবহার করে সরকারি-বেসরকারি বিভিন্ন কর্মকর্তাকে হুমকি-ধমকি ও ভয়-ভীতি দেখিয়ে এসব দুর্নীতি করে আসছেন চেয়ারম্যান।\হএ বিষয়ে শাহ আলম বলেন, যারা তার বিরুদ্ধে বিভিন্ন অভিযোগ এনে সংবাদ সম্মেলন করেছেন তারা নিজেরাই নানা দুর্নীতিতে জড়িত।

মন্তব্য করুন